শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ | ৮ আশ্বিন ১৪২৮

শিল্প বাণিজ্য

বিআইবিএমের অনুষ্ঠানে গভর্নর

ব্যাংক খাতে দক্ষ জনবল তৈরি আবশ্যক

নিজস্ব প্রতিবেদক

বর্তমানে ব্যাংকিং একটি জ্ঞানভিত্তিক গতিশীল খাত। কারণে খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধি দক্ষ জনবল তৈরি অত্যাবশ্যক হয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গতকাল এমন মন্তব্য করেন তিনি।

বিআইবিএম সার্টিফিকেশন কোর্সে উত্তীর্ণ ব্যাংকারদের জন্য তৃতীয়বারের মতো সনদপত্র সম্মাননা দেয়ার জন্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন বিআইবিএমের গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান ফজলে কবির। সমাবর্তন বক্তা ছিলেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান প্রধান।

বিআইবিএমের . মোজাফফর আহমদ চেয়ার প্রফেসর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক . বরকত--খোদা ব্যাংকারদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। সূচনা বক্তব্য দেন পরিচালক (প্রশিক্ষণ সার্টিফিকেশন প্রোগ্রাম) মোহাম্মদ সোহেল মোস্তফা। বিআইবিএমের মহাপরিচালক . মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ছয়টি কোর্সের চূড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ২৬০ জন ব্যাংক কর্মকর্তাকে সনদপত্র দেয়া হয়। সনদপত্র    সম্মাননা অনুষ্ঠানের অন্যতম গণমাধ্যম সহযোগী ছিল বণিক বার্তা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফজলে কবির বলেন, সার্টিফিকেশন কোর্স ব্যাংক খাতে দক্ষ মানবসম্পদ গড়তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বিআইবিএম বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যাংকারদের প্রশিক্ষণে কাজ করে যাচ্ছে। সার্টিফিকেশন কোর্সের মাধ্যমে কাজটি আরো সহজ হবে।

মো. আতাউর রহমান প্রধান তার বক্তব্যে বলেন, বিআইবিএমের সার্টিফিকেশন প্রোগ্রাম ব্যাংক খাতের পেশাদারিত্ব বাড়াতে ভূমিকা রাখবে। সমসাময়িক ব্যাংকিং ব্যবস্থার সঙ্গে ব্যাংকাররা খাপ খাওয়াতে সক্ষম হবে। 

সার্টিফিকেশন কোর্স সম্পন্নকারীরা জ্ঞানভিত্তিক ব্যাংক খাত গড়তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন . বরকত--খোদা। তিনি বলেন, ব্যাংক খাতে দক্ষ মানবসম্পদের বিকল্প নেই।

. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ব্যাংক খাতের বিভিন্ন ধরনের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করছে সার্টিফিকেশন কোর্সগুলো। দক্ষ জনবল ব্যাংক খাতের ঝুঁকিগুলো কমিয়ে আনে। সার্টিফিকেশন কোর্স সম্পন্নকারী ব্যাংকাররা আগামী দিনে ব্যাংক খাতের উন্নয়নে তাত্পর্যপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এতে বাংলাদেশের উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন বিশ্ব আর্থিক পরিমণ্ডলে দেশটির অবস্থান আরো দৃঢ় হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন