শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ | ৮ আশ্বিন ১৪২৮

দেশের খবর

কক্সবাজারে দুর্গতদের জন্য বরাদ্দ ৩০০ টন চাল ও ১৫ লাখ টাকা

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, কক্সবাজার

প্রবল বর্ষণ উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কক্সবাজার জেলার ৫১টি ইউনিয়ন পানির নিচে রয়েছে। এতে পানিবন্দি হয়ে আছে ৫৫ হাজার মানুষ। এখনো জেলার চকরিয়া, কুতুবদিয়া, পেকুয়া, রামু, কক্সবাজার সদর, টেকনাফ উখিয়ার বহু এলাকা পানির নিচে রয়েছে। বৃষ্টি কমলেও পানিতে ডুবে আছে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের কয়েকটি স্থান। এদিকে তীব্র খাদ্য সংকটে পড়েছে বন্যার্তরা। দেখা দিয়েছে সুপেয় পানির তীব্র সংকট। সর্বত্র ফুটে উঠছে ক্ষতচিহ্ন।

জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, পানিবন্দি মানুষের কষ্ট লাঘবে সরকারি সহায়তা হিসেবে ৩০০ টন চাল, দুই হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার এবং নগদ ১৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে ত্রাণ বিতরণ করছেন। পাশাপাশি কিছু বেসরকারি সংস্থাও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। আমরা আশা করছি নতুন করে বৃষ্টি না হলে শিগগিরই পানি নেমে যাবে। তার আগ পর্যন্ত মানুষের কষ্ট লাঘবে জেলা প্রশাসনের ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ আরো বলেন, লোকলজ্জার ভয়ে যারা লাইনে দাঁড়িয়ে ত্রাণ নিতে চান না, তারা জাতীয় হেল্পলাইন ৩৩৩ তে ফোন করলে গোপনীয়তা বজায় রেখে খাদ্যসহায়তা প্রদান করা হবে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেজ বলেন, পানিবন্দি মানুষকে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে আনা হয়েছে। দেয়া হচ্ছে খাবার। পাহাড় ধসে বানের পানিতে নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত দুর্যোগকবলিত মানুষের জন্য কাজ করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন