শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ | ৯ আশ্বিন ১৪২৮

খেলা

পুরুষ দলগত আর্চারির ‘রাজা’ দক্ষিণ কোরিয়া

ক্রীড়া প্রতিবেদক

আর্চারির জায়ান্ট দক্ষিণ কোরিয়াকে থামানোর কোনো কৌশলই কাজে আসছে না। রোববার মেয়েদের দলগত ইভেন্টে টানা নবম অলিম্পিক আসরে স্বর্ণ জয় করে এশিয়ান দেশটি। আজ পুরুষ দলগত আর্চারির স্বর্ণও জিতে নেয় দেশটি। এটা সর্বশেষ ছয় আসরে তাদের পঞ্চম মুকুট।

দক্ষিণ কোরিয়ানরা আবারো প্রমাণ করলেন, আর্চারিতে তারা অপ্রতিদ্বন্দ্বী। টিনএজ আর্চার কিম জে দেওক, কিম উজিন ও ওহ জিন হিয়েককে নিয়ে গড়া দক্ষিণ কোরিয়া দল অনেকটা বাধাহীনভাবেই হারিয়েছে তাইপের ডেং ইউ-চেং, ট্যাং চিহ-চুন ও ওয়েই চুন-হেংকে। প্রতিে রৌপ্য পদক জিতেছে চাইনেজ তাইপে। অন্যদিকে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতে নেয় জাপান। 

২০০০ আসর থেকে এটা কোরিয়ানদের পঞ্চম মুকুট। এর আগের পাঁচ আসরের মধ্যে চারবারই স্বর্ণ জয় করে দেশটি। শুধু ২০১২ সালের লন্ডন আসরে ইতালি তাদের জয়রথ ভেঙে দেয়।  

অবিশ^াস্য পারফরম্যান্সে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন ১৭ বছর বয়সী আর্চার কিম জে দেওক। এর আগে মিশ্র দ্বৈতেও স্বর্ণ জিতে নেন তিনি। বাংলাদেশের রোমান সানা ও দিয়া সিদ্দিকীকে হারায় তার দল। এবার দলগত আর্চারির স্বর্ণও জিতলেন তিনি সতীর্থদের নিয়ে। এই তরুণ আর্চারকে নিয়ে ৩৯ বছর বয়সী সতীর্থ ওহ কিন হিয়েক বলেন, আমি মনে করি জে দিওক আজকের হিরো। যখনই আমরা কঠিন সময়ে পড়েছি তখন সে অনবদ্য শট নিয়ে ১০ স্কোর করেছে এবং এভাবে আমাদের মনোবল ফিরে পেয়েছি। তার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। 

১৭ বছর বয়সী কিম জয় শেষে বলেন, ম্যাচের আগে ওহ জিন হিয়েক আমাকে বলেছেন, ‘যাও আজ পাগলাটে পারফর্ম করব।’ এরপর গোটা দলই আমরা অবিশ^াস্য খেলেছি, এখন আমাদের উদযাপনের সময়। তবে যদি আমরা খুব বেশি উদ্বিগ্ন হতাম তবে কিন্তু প্রত্যাশিত ফল পেতাম না। একটি টিম হিসেবে মনোবল ধরে রাখার চেষ্টা করেছি আমরা।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন