শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ | ৯ আশ্বিন ১৪২৮

টকিজ

‘পরী নিজেও নিজেকে চিনতে পারেনি’

ফিচার প্রতিবেদক

প্রীতিলতারূপে পরীমনি

পরিচালক রাশিদ পলাশের প্রীতিলতা ছবির জন্য পরীমনির লুক এখন দেশের চলচ্চিত্রাঙ্গনে আলোচনার অন্যতম বিষয়। ঈদের ঠিক আগের দিন প্রীতিলতা ছবির ফেসবুক পেজ টিম প্রীতিলতা থেকে প্রকাশিত হয় ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে বাংলার কিংবদন্তি বিপ্লবী প্রীতিলতার চরিত্রে পরীমনির লুক। প্রীতিলতারূপে পরীমনি শিরোনাম দিয়ে ছবিটি প্রকাশ করা হয়। ক্যারেক্টার প্রেজেনটেশন, আর্ট ডিরেকশন, স্টাইলিং কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন বিপ্লব সাহা। ছবির সংলাপ চিত্রনাট্য লিখেছেন গোলাম রাব্বানী এবং এক্সিকিউটিভ প্রডিউসারের দায়িত্ব পালন করছেন রঞ্জু চৌধুরী। উল্লেখ্য, বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের জীবনকাহিনী নিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রীতিলতা।

প্রীতিলতার পোস্টার তথা প্রীতিলতার চরিত্রে পরীমনির লুক প্রকাশ নিয়ে পরিচালক রাশিদ পলাশ বণিক বার্তাকে বলেন, আমরা প্রায় ১০০ বছর পরে একজন বিপ্লবীকে তুলে আনছি। ব্যাপারটা প্রবলভাবে আমাদের মাথায় ছিল। আমরা পরীমনিকে চিনি গ্ল্যামার ক্যারেক্টার হিসেবে। এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল। যদিও আমার কাছে বিষয়টা খুব বেশি চ্যালেঞ্জিং মনে হয়নি, কেননা আমি জানতাম কী হতে যাচ্ছে। তার পরও আমার টিম খুবই এক্সাইটেড ছিল এটা নিয়ে। বিপ্লব সাহা ছিলেন ক্যারেক্টার প্রেজেন্টেশন, আর্ট ডিরেকশন কোরিওগ্রাফির দায়িত্বে। তার টিম কাজ শুরু করল। আমরা পরীর মেকডাউন করলাম। এরপর যা দেখলাম, পরী নিজেও নিজেকে চিনতে পারেনি। আমরা যা চেয়েছিলাম তা পেয়েছি। পরীকে প্রীতিলতা হিসেবে উপস্থাপনের ক্ষেত্রে এখন পর্যন্ত আমরা ৭০ শতাংশ সফল। ঈদ উপলক্ষে পোস্টার মুক্তি দিলাম। এটা আমাদের দর্শকদের জন্য ঈদের উপহার। এছাড়া অনেকেই বলছিলেন, পরীকে আমরা প্রীতিলতার মতো বিপ্লবী চরিত্রে কীভাবে হাজির করব? তাদের জন্যও এটা একটা উত্তর উপহার।

পরীমনি কীভাবে চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন এবং পোস্টার দেখার পর তার অনুভূতি কেমন ছিল জানতে চাইলে পলাশ বলেন, পরী তো আগে থেকেই এক্সাইটেড ছিল। তার পরও টেনশন ছিল ওর। লুক সেটের দিন খুব ভোরে আমাকে ফোন দিয়েছে পরী। জানাল, সে খুব ভয় পেয়েছে। পরী সকালে প্রীতিলতার ছবিটা বের করে দেখল। পরী বলল, আমি খুব ভয় পেয়েছি। প্রীতিলতার ছবিটা বের করে দেখছিলাম। হঠাৎ মনে হলো প্রীতির আত্মা আমার ওপর ভর করেছে তিনি আরো বলেন, প্রীতিলতার লুক সেট করার পর পরী তার আত্মীয়স্বজনদের ভিডিওকলে ফোন দিচ্ছিল। তারা পরীকে দেখে চিনতে পারেনি। তারা বলছিল, হঠাৎ পরীর মোবাইলে কে? পোস্টার রিলিজ হওয়ার পরও পরীর অনেক কাছের মানুষজন চিনতে পারেনি যে এটা পরীমনি। এসব ঘটনা প্রমাণ করে আমরা মোটামুটি সফল। প্রীতিলতা ছবিটি কবে মুক্তি পাবে বা কী অবস্থায় আছে জানতে চাইলে রাশিদ পলাশ বণিক বার্তাকে বলেন, আমরা আগামী মার্চে নারী দিবসে সিনেমাটা রিলিজ দিতে চাই। আমরা কভিডের মধ্যে শুটিং শুরু করেছিলাম। এরপর বারবার লকডাউনে শুটিংয়ে ব্যাঘাত ঘটেছে। এখন পরিস্থিতি আরো খারাপ। গত মাসের তারিখ শুট প্ল্যান করেছিলাম। সেটা হয়নি। আবার আগস্টের ১০ তারিখ থেকে শুটিংয়ের প্ল্যান আছে। আমরা এক লটে বাকি শুটিং শেষ করে ফেলতে চাই। এই শেষ লটের শুটিং চট্টগ্রামে হবে বলে জানালেন নির্মাতা পলাশ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন