বৃহস্পতিবার | জুলাই ২৯, ২০২১ | ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

শেষ পাতা

বাংলাদেশ, ভারত ও চীনের তিন টিকা

শর্তসাপেক্ষে ট্রায়ালের অনুমতি দেয়ার সিদ্ধান্ত বিএমআরসির

নিজস্ব প্রতিবেদক

মানুষের শরীরে পরীক্ষার (হিউম্যান ট্রায়াল) অনুমোদন পাওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের গ্লোব বায়োটেকের বঙ্গভ্যাক্স এবং চীন ভারতের দুটি টিকাকে কিছু শর্ত মানতে হবে। তিন টিকাকে নীতিগত অনুমোদন দেয়ার সিদ্ধান্তে এমনটি জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (বিএমআরসি) গতকাল এক সভা শেষে তথ্য জানিয়েছেন বিএমআরসির পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. রুহুল আমিন।

বিএমআরসি সূত্রে জানা গেছে, মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের আগে বিএমআরসির নিয়ম অনুযায়ী সব ধরনের শর্ত পূরণ করতে হবে। বিএমআরসির বিশেষজ্ঞদের সভায় অনুমোদন দেয়া হয়। শিম্পাঞ্জি বানরের ওপর টিকাগুলোর কার্যকারিতা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সব কাগজপত্র বিএমআরসিতে জমা দিতে হবে।

তিন টিকার তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশের গ্লোব বায়োটেকের বঙ্গভ্যাক্স এবং ভারত চীনের দুটি টিকা। বিদেশী দুটি টিকার নাম প্রকাশ করা হয়নি। বাংলাদেশে বহুদিন থেকে টিকার ট্রায়াল নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআর,বি) দুজন বিজ্ঞানী চীন ভারতের টিকার ট্রায়ালের জন্য অনুমোদন চেয়েছিলেন। চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি নিজেদের উৎপাদিত নভেল করোনাভাইরাসের টিকা বঙ্গভ্যাক্স মানবদেহে পরীক্ষা চালানোর জন্য বিএমআরসির কাছে অনুমতি চায় গ্লোব বায়োটেক। ডা. রুহুল আমিন জানান, কয়েকটি শর্তে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে হিউম্যান ট্রায়ালের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তবে এটা অনুমতি তা সরাসরি বলা যাবে না। শর্ত দেয়া হয়েছে, ভুল-ত্রুটি ঠিক করে শর্ত পূরণ করলে অনুমতি দেয়া হবে।

বিএমআরসির নিয়ম অনুযায়ী, প্রথম পর্যায়ে বানর বা শিম্পাঞ্জির ওপর পরীক্ষা করতে হবে। পরীক্ষার পর টিকার কার্যকারিতা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সব কাগজপত্র বিএমআরসিতে জমা দিতে হবে। এর পরই মানবদেহের ওপর টিকার ট্রায়াল চালানোর অনুমতি দেয়া হবে। তিনটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীকে শিগগিরই চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি জানানো হবে বলে জানান রুহুল আমিন।

অনুমতি পেলে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধী কোনো টিকার ট্রায়াল হবে। বিএমআরসি নীতিগত অনুমোদন দিলে কোনো প্রতিষ্ঠান ট্রায়ালের জন্য ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কাছে আবেদন করতে পারে। ঔষধ প্রশাসনের অনুমোদন পেলেই মানবদেহে টিকার পরীক্ষায় আর কোনো আইনগত বাধা থাকবে না। তবে আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে মানবদেহে প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনো টিকাকে তিন দফা ট্রায়ালে উত্তীর্ণ হতে হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন