বৃহস্পতিবার | জুন ১৭, ২০২১ | ৩ আষাঢ় ১৪২৮

আন্তর্জাতিক খবর

করোনা মহামারী: অবৈধ মাদক ব্যবসার বিস্তৃতি এখন অনলাইনে

বণিক বার্তা অনলাইন

করোনা মহামারীর কারণে হোটেল, রেস্টুরেন্ট ও পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অবৈধ মাদকের ব্যবসাও অনলাইন কেন্দ্রিক হয়ে উঠেছে। আর এই সুযোগে নিজেদের ব্যবসার প্রসার ঘটিয়েছে অবৈধ মাদক ব্যবসায়ীরা। ইউরোপের একটি প্রতিষ্ঠানের তথ্যানুযায়ী, করোনা মহামারী যতদিন থাকবে এই ব্যবসাও ততদিন চলবে। খবর রয়টার্স।

লিসবনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইএমসিডিডিএ সহযোগিতায় অনলাইনে ২০২১ সালের মাদক সংক্রান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশকালে স্বরাষ্ট্র বিষয়ক ইউরোপিয়ান কমিশনের ইভা জোহানসন বলেন, করোনা মহামারী অবৈধ মাদক ব্যবসায়ীদের অনলাইন কার্যক্রমের দিকে নিয়ে যাচ্ছে

তিনি আরও বলেন, মাদক ব্যবসায়ীরা এখন সড়ক থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের দিকে ধাবিত হচ্ছে। তারা সুরক্ষিত মেসেজিং সার্ভিসের মাধ্যমে অর্ডার নিয়ে হোম ডেলিভারিমাধ্যমে গ্রাহকদের কাছে  মাদক পৌঁছে দিচ্ছে।

এক প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভ্রমণ এবং সীমানা বন্ধ থাকায় বর্তমানে মাদক চোরাচালানকারীরা শিপিং কন্টেইনারে মাদক পাচার করছে।

করোনা মহামারীর প্রথম দিকে শহরের রাস্তায় যেসব মাদক ব্যবসায়ী মাদক সরবরাহ করত তারা কিছুটা সমস্যার সম্মুখীন হয়। সে সময় ক্ষেত্র বিশেষে মাদকের সংকটও সৃষ্টি হয়েছিল। তবে মাদক বিক্রেতা এবং ক্রেতারা ধীরে ধীরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, সুরক্ষিত মেসেজিং এবং অনলাইন সরবরাহকারীদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে এবং হোম ডেলিভারি প্রদানের মাধ্যমে এই সংকট কাটিয়ে উঠেছে।

ইএমসিডিডিএ পরিচালক অ্যালেক্সিস গুসডিল বলেন, অবৈধ মাদক ব্যবসার আরও আধুনিকীকরণের যে ইঙ্গিত প্রতিবেদনে দেওয়া হয়েছে সেটি আরও ক্ষতিকর প্রভাব ফেলবে। অনলাইনে লেনদেনের সুবিধা থাকায় মাদক ব্যবসায়ীরা শহর থেকে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাদক সরবরাহে তরুণদের সহজেই নিয়োগ প্রদান করতে পারবে।

করোনা মহামারীরতে অনেকেই কর্ম হারাচ্ছেন, কেউ কেউ প্রিয়জনদের হারাচ্ছেন। আর্থিক দুরবস্থার কারণে অনেকে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে আরও ক্ষতিকর মাদক ব্যবহারের দিকে ঝুঁকতে পারেন বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন গুসডিল।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন