সোমবার | আগস্ট ০২, ২০২১ | ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮

শেয়ারবাজার

বিক্রির চাপে সাধারণ বীমার শেয়ারে দরপতন

নিজস্ব প্রতিবেদক

বছরের মার্চের মাঝামাঝি থেকেই বীমা খাতের, বিশেষ করে সাধারণ বীমা খাতের শেয়ারদর লাগাম ছাড়া বেড়েছে মাঝেমধ্যে কিছুটা দর সংশোধন হলেও পুঁজিবাজারের লেনদেন দরবৃদ্ধির ক্ষেত্রে বীমা খাতের আধিপত্য চলছেই গত এক সপ্তাহে শুধু সাধারণ বীমা খাতের শেয়ারে সাড়ে হাজার কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে অবশ্য সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে গতকাল বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সাধারণ বীমা খাতের শেয়ার বিক্রি করে দেয়ার প্রবণতা ছিল লক্ষণীয় ফলে বিক্রয়চাপের কারণে গতকাল অধিকাংশ তালিকাভুক্ত সাধারণ বীমা খাতের কোম্পানির শেয়ারদর কমেছে

বাজারসংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত কয়েক মাসে সাধারণ বীমা খাতের শেয়ারদর অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে বিশেষ করে কয়েক দিন ধরে বীমা খাতের লেনদেনের পরিমাণ অনেক বেশি বেড়েছে এরই মধ্যে অনেক সাধারণ বীমা কোম্পানির শেয়ারদর ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে চলে গেছে অবস্থায় খাতের শেয়ারদর বাড়ার বিষয়টি নিয়ে যেকোনো সময় নিয়ন্ত্রক সংস্থার তদন্ত কার্যক্রম শুরুর ঘোষণা আসতে পারে বলে অনেকেই ধারণা করছেন ফলে তার আগেই শেয়ার বিক্রি করে দিয়ে মুনাফা তুলে নেয়ার প্রবণতা দেখা গেছে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গতকাল লেনদেন শুরুর পর থেকেই ঊর্ধ্বমুখিতা দেখা গেছে সূচকে যদিও শেষার্ধের বিক্রয়চাপের কারণে শেষ পর্যন্ত দশমিক ১৯ শতাংশ বেড়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স হাজার ৬৭ পয়েন্টে পৌঁছে, যা আগের দিন শেষে ছিল হাজার ৫৫ পয়েন্টে গতকাল সূচকের উত্থানে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড, রবি আজিয়াটা, মীর আখতার হোসেন, গ্রামীণফোন বিবিএস কেবলসের শেয়ারের

এদিকে ডিএসইর শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস গতকাল দিন শেষে দশমিক পয়েন্ট বেড়ে হাজার ২৯৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে, আগের দিন শেষে যা ছিল হাজার ২৯৬ পয়েন্টে ব্লু-চিপ সূচক ডিএস-৩০ দিনের ব্যবধানে দশমিক পয়েন্ট বেড়ে গতকাল হাজার ২০৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে, আগের দিন শেষে যা ছিল হাজার ২০৩ পয়েন্টে গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে হাজার ৬৬৯ কোটি টাকা এর আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল হাজার ৭০০ কোটি টাকা এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৬৭টি কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড করপোরেট বন্ডের মধ্যে দিন শেষে দর বেড়েছে ২০৯টির, কমেছে ১৪৯টির আর অপরিবর্তিত ছিল নয়টি সিকিউরিটিজের বাজারদর

খাতভিত্তিক লেনদেনচিত্রে দেখা যায়, গতকাল ডিএসইর মোট লেনদেনের ১৫ দশমিক ৭২ শতাংশ দখলে নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে সাধারণ বীমা খাত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৫ দশমিক ৩১ শতাংশ দখলে নিয়েছে বস্ত্র খাত ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ লেনদেনের ভিত্তিতে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বিবিধ খাত চতুর্থ স্থানে থাকা প্রকৌশল খাতের দখলে ছিল ১১ দশমিক ১০ শতাংশ মোট লেনদেনের দশমিক ৫২ শতাংশ দখলে নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে ছিল ব্যাংক খাত

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষ সিকিউরিটিজ ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স, ফরচুন সুজ, ন্যাশনাল পলিমার, ন্যাশনাল ফিড মিল, ড্রাগন সোয়েটার, সন্ধানী ইন্স্যুরেন্স, রিং সাইন টেক্সটাইল আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ

গতকাল এক্সচেঞ্জটিতে দরবৃদ্ধির শীর্ষে থাকা কোম্পানিগুলো হচ্ছে জাহিন স্পিনিং, ইনডেক্স অ্যাগ্রো, মির আখতার হোসেন, কপারটেক, এস আলম কোল্ড রোল্ড স্টিল, দেশবন্ধু পলিমার, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, নূরানি ডায়িং, সোনারগাঁও টেক্সটাইল আরএকে সিরামিকস

অন্যদিকে ডিএসইতে গতকাল সবচেয়ে বেশি দর কমেছে ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, জিবিবি পাওয়ার, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, বিজিআইসি, ন্যাশনাল ফিড মিল, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল হাউজিং, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স জনতা ইন্স্যুরেন্স

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন