রবিবার | জুন ২০, ২০২১ | ৬ আষাঢ় ১৪২৮

শেয়ারবাজার

ইসলামী ব্যাংকের নিট আয় কমেছে ১৩%

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি ২০২১ হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের বিনিয়োগের বিপরীতে নিট আয় হয়েছে ৬৮৪ কোটি টাকা। আগের বছরের একই সময়ে বিনিয়োগের বিপরীতে নিট আয় ছিল ৭৮৬ কোটি টাকা। সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে ব্যাংকটির বিনিয়োগের বিপরীতে নিট আয় কমেছে ১৩ শতাংশ।

চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, আলোচ্য সময়ে ইসলামী ব্যাংকের মোট পরিচালন আয় হয়েছে ৯৯২ কোটি টাকা। যেখানে এর আগের  বছরের একই সময়ে পরিচালন আয় ছিল প্রায় হাজার ৩৯ কোটি টাকা। চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে ব্যাংকটির পরিচালন খাতে ব্যয় হয়েছে ৫৬৬ কোটি টাকা। যেখানে এর আগের বছরের একই সময়ে খাতে ব্যয় ছিল প্রায় ৫২৩ কোটি টাকা। বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ সময়ে ব্যাংকটি সঞ্চিতি বাবদ ১৮৮ কোটি টাকা সংরক্ষণ করেছে। যেখানে এর আগের বছরের একই সময়ে প্রায় ২৪৬ কোটি টাকার সঞ্চিতি সংরক্ষণ করেছিল। কর পরিশোধের পর চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে ব্যাংকটির নিট মুনাফা হয়েছে ৭৩ কোটি টাকা। যেখানে এর আগের বছরের একই সময়ে নিট মুনাফা ছিল ৬৯ কোটি টাকা। আলোচ্য সময়ে ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৫ পয়সা। যেখানে এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪৩ পয়সা। বছরের ৩১ মার্চ শেষে ব্যাংকটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩৯ টাকা ৩৩ পয়সায়।

সর্বশেষ ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০২০ হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ প্রদানের সুপারিশ করেছে ইসলামী ব্যাংকের পর্ষদ। আলোচ্য হিসাব বছরে ব্যাংকটির সমন্বিত ইপিএস ছিল টাকা ৯৮ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল টাকা ৩০ পয়সা।

১৯৮৫ সালে তালিকাভুক্ত হওয়া ইসলামী ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধন হাজার কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন হাজার ৬১০ কোটি টাকা। রিজার্ভে রয়েছে হাজার ৩২৭ কোটি ৪১ লাখ টাকা। মোট শেয়ার সংখ্যা ১৬০ কোটি ৯৯ লাখ ৯০ হাজার ৬৬৮টি। এর মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালকের হাতে রয়েছে ৫১ দশমিক ৩২ শতাংশ শেয়ার। ১৪ দশমিক শূন্য শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, ২০ দশমিক ৫০ শতাংশ বিদেশী বাকি ১৪ দশমিক ১১ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন