রবিবার | জুন ২০, ২০২১ | ৬ আষাঢ় ১৪২৮

পণ্যবাজার

ভারতে গম উৎপাদন রেকর্ড দ্বিতীয় সর্বোচ্চে পৌঁছবে

বণিক বার্তা ডেস্ক

ভারতে করোনার ভয়াবহতার মধ্যেও খাদ্যশস্য গম উৎপাদনে চাঙ্গা ভাব বজায় আছে। গত বছরগুলোয় উৎপাদনের ধারাবাহিক রেকর্ডের পর ২০২১-২২ বিপণন মৌসুমে দেশটির গম উৎপাদন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছবে। মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) গ্লোবাল এগ্রিকালচারাল ইনফরমেশন নেটওয়ার্কের (জিএআইএন) প্রতিবেদনে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। খবর ওয়ার্ল্ড গ্রেইন ডটকম।

প্রাথমিকভাবে ইউএসডিএ ভারতে গম উৎপাদন কমে যাওয়ার পূর্বাভাস দেয়। এর আগে উৎপাদন হ্রাস পাওয়া নিয়ে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে মার্কিন কৃষি বিভাগ পূর্বাভাস দেয়। তবে ভারত এবার গম উৎপাদনে দেশটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড স্পর্শ করবে বলে প্রত্যাশা করছে। চলতি বিপণন মৌসুমে প্রায় ১০ কোটি ৫০ লাখ টন গম উৎপাদিত হওয়ার পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভয়াবহ আঘাত এনেছে। দেশটিতে আক্রান্ত মৃত্যুর হার আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। অবস্থায় দেশটির সরকার অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলায় সেখানে বিনা মূল্যে খাদ্যশস্য, বিশেষ করে চাল গম বিতরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইউএসডিএ বলছে, বছরের মে জুনে দেশটির জনসংখ্যার প্রায় ৬২ শতাংশ মানুষের মাঝে চাল গম বিতরণ করা হবে। এজন্য প্রয়োজন হবে প্রায় ৮০ লাখ টন শস্য।

ইউএসডিএর পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২১-২২ বিপণন মৌসুমে ভারতের চাল উৎপাদনের পরিমাণ অপরিবর্তিত থাকবে। মৌসুমে ১১ কোটি ৮০ লাখ টন চাল উৎপাদিত হতে পারে।  

গত বছর থেকে ভারতের চাল রফতানির চাহিদা জোরদার হতে থাকে। কিন্তু দেশটিতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ায় সরবরাহজনিত সমস্যায় পড়েন ব্যবসায়ীরা। ইউএসডিএ বলছে, যদি বিশ্ববাজারে দাম চাহিদায় বড় কোনো পরিবর্তন না আসে তবে ২০২১-২২ বিপণন মৌসুমে ভারত কোটি ৫৫ লাখ টন চাল রফতানি করবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন