রবিবার | মে ০৯, ২০২১ | ২৬ বৈশাখ ১৪২৮

পণ্যবাজার

ইআইএর পূর্বাভাস

যুক্তরাষ্ট্রের শেল অয়েল উত্তোলন বাড়বে ৭৬ লাখ ব্যারেল

বণিক বার্তা ডেস্ক

আগামী মাসে যুক্তরাষ্ট্রের শেল অয়েলের (পাথরের খাঁজে জমে থাকা অপরিশোধিত জ্বালানি তেল) দৈনিক উত্তোলন বেড়ে ৭৬ লাখ ১০ হাজার ব্যারেলে পৌঁছবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এনার্জি ইনফরমেশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (ইআইএ) সময়ে দেশটির পারমিয়ান বেসিন থেকে সর্বোচ্চ পরিমাণ তেল উত্তোলনের প্রত্যাশা করা হচ্ছে। খবর রয়টার্স।

যুক্তরাষ্ট্রের শেল অয়েল উত্তোলনের প্রধান ক্ষেত্র সাতটি। এসব ক্ষেত্র থেকে পরপর তিন মাসে তেল উত্তোলন ক্রমবর্ধমান। সর্বশেষ এপ্রিলের মতো মে মাসেও দেশটির শেল অয়েল উত্তোলন বাড়বে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। গত দুই মাসে ধারাবাহিকভাবে বেড়ে বর্তমানে দেশটির শেল অয়েল উত্তোলনের পরিমাণ প্রতিদিন ৭৫ লাখ ৯৭ হাজার ব্যারেলে দাঁড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এনার্জি ইনফরমেশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (ইআইএ) পূর্বাভাস বলছে, আগামী মে মাসে দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন প্রতিদিন আরো ১৩ হাজার ব্যারেল বাড়বে। এতে দশমিক ১৭ শতাংশ হারে যুক্তরাষ্ট্রের শেল অয়েল উত্তোলন বেড়ে প্রতিদিন ৭৬ লাখ ১০ হাজার ব্যারেলে পৌঁছবে।

ইআইএর মাসিক পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, দেশের বৃহৎ পারমিয়ান বেসিন থেকে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন সবচেয়ে বেশি বাড়বে। গত বছরের এপ্রিলের তুলনায় চলতি বছরের মে মাসে পারমিয়ান বেসিন থেকে শেল অয়েল উত্তোলন বাড়বে ৫২ হাজার ব্যারেল। সময় জ্বালানি পণ্যটির প্রতিদিন মোট উত্তোলন বৃদ্ধির প্রত্যাশা করা হচ্ছে ৪৪ লাখ ৭০ হাজার ব্যারেল।

তবে সময় কয়েকটি বেসিনে উত্তোলন স্থবির কমার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের আরো দুটি শীর্ষ তেল উত্তোলনযোগ্য বেসিন ব্যাকেন ঈগল ফোর্ড। বেসিন দুটোর প্রতািদন শেল অয়েল উত্তোলনের পরিমাণ যথাক্রমে ১২ হাজার নয় হাজার ব্যারেল হকমবে। এর মধ্যে নর্থ ডাকোটা মনটানায় অবস্থিত ব্যাকেন বেসিনের উত্তোলন কমে দাঁড়াবে ১১ লাখ ব্যারেলে, যা গত বছরের জুলাইয়ের পর সর্বনিম্ন।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি তেলের দরবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে খনন কার্যক্রম বাড়িয়ে দিয়েছে উত্তোলন সংস্থাগুলো। তবে জ্বালানি তেলের চাহিদা পুনরুদ্ধারের মন্থর গতি এবং উত্তোলন কমিয়ে আনতে বিনিয়োগকারীদের চাপে সংস্থাগুলোর উত্তোলন বৃদ্ধি খুব একটা গতি পাচ্ছে না। ফলে এসব অঞ্চলে শেল অয়েল উত্তোলন কমেছে বলে মনে করছেন জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা।

ইআইএর ড্রিলিং প্রডাক্টিভিটি রিপোর্ট বলছে, আগামী মাসে শেল অয়েলের প্রধান বেসিনগুলো থেকে প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলনও কমে আসবে। সে হিসেবে আগামী মে মাসে এসব উৎস থেকে প্রতিদিন প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন ১০ কোটি ঘনফুট কমে মোট উত্তোলনের পরিমাণ দাঁড়াবে হাজার ২৮০ কোটি ঘনফুটে।

দেশটির শেল অয়েল উত্তোলন বাড়লেও গ্যাস উত্তোলন কমে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সবচেয়ে বড় শেল গ্যাস বেসিন অ্যাপ্পালাচিয়ায় আগামী মাসে গ্যাস উত্তোলন এক কোটি ঘনফুট কমে হাজার ৪১০ কোটি ঘনফুটে পৌঁছবে, যা ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত সর্বনিম্ন। ওই বছরের ডিসেম্বরে গ্যাস উত্তোলন রেকর্ড করা হয়েছিল হাজার ৫২০ কোটি ঘনফুট। ক্রমহ্রাসমান পরিস্থিতি বজায় থাকলে খাতটিতে ধারাবাহিক ধস নামতে পারে। তবে হেন্সভাইল বেসিনে শেল গ্যাস উত্তোলন বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন