রবিবার | মে ০৯, ২০২১ | ২৬ বৈশাখ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

জাপানে কমেছে নতুনদের কাজের সুযোগ

বণিক বার্তা ডেস্ক

কভিড-১৯ মহামারীর কারণে জাপানের প্রায় ২২ শতাংশ বড় প্রতিষ্ঠান নতুন নিয়োগ কমিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছে। আগামী বছরের এপ্রিলে শুরু হওয়া বাণিজ্য বছরে সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। এক বছর আগে থেকেই নতুনদের নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে দেশটির সংস্থাগুলো। খবর কিয়োদো নিউজ।

১১০টি প্রতিষ্ঠানের ওপর চালানো সাম্প্রতিক এক জরিপে দেখা যায়, জাপানের পরিবহন পর্যটন খাতে সবচেয়ে বেশি আঘাত হেনেছে করোনা মহামারী। খাতের সংশ্লিষ্টরা নতুন নিয়োগ প্রায় বন্ধ রেখেছেন।

সাধারণত প্রতি অর্থবছরের শুরুতেই জাপানের প্রতিষ্ঠানগুলো নতুন স্নাতক উত্তীর্ণদের নিয়োগ দিয়ে থাকে। এক বছর আগে থেকেই প্রক্রিয়া শুরু হয়। কিয়োডোর ওই জরিপ অনুযায়ী, মাত্র ৩৪ শতাংশ প্রতিষ্ঠান বলছে, তারা নিয়োগের এই ধারা অব্যাহত রাখবে। ১৭ শতাংশ প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিতে চেষ্টা করবে ২৩ শতাংশ এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। কিছু সংস্থা বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্তই নেয়নি।

২০২১ অর্থবছরের জন্য ৪৬ শতাংশ প্রতিষ্ঠান আগের বছরের  চেয়ে নতুন নিয়োগ কমিয়ে দিয়েছে। যেখানে ১২ শতাংশ প্রতিষ্ঠান নিয়োগের পরিমাণ বাড়িয়েছে। ৩৭ শতাংশ প্রতিষ্ঠান ২০২০ সালের পরিমাণেই নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মার্চের শুরু থেকে মধ্য এপ্রিল পর্যন্ত জরিপ পরিচালনা করা হয়। এতে অংশ নেয়া ১১০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আছে টয়োটা মোটর করপোরেশন, নিশান মোটর করপোরেশন, সনি গ্রুপ, জাপান এয়ারলাইনস করপোরেশন, নিনতেন্দো, মিজুহো ফিন্যান্সিয়াল গ্রুপসহ অন্যরা।

যদিও কভিড-১৯ মহামারীর প্রাথমিক দুর্যোগ দেশটি কাটিয়ে উঠেছে। তবে অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এটি এখনো টালমাটাল অবস্থায় আছে। জাপানের প্রতিষ্ঠানগুলো যে দৃষ্টিতে সদ্য স্নাতক পাস করা মানুষদের দেখত, সেটি মহামারী বদলে দিয়েছে। অনেক প্রতিষ্ঠানই বলছে, তারা অনলাইনে সাক্ষাত্কার নেয়ার ব্যবস্থা করবে। এমনকি মহামারী শেষ হওয়ার পরেও অনেকে অনলাইনেই কাজ চালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে। শুধু তাই নয়, জাপানের যে কঠিন করপোরেট সংস্কৃতি ছিল, সেটিও অনেক শিথিল হয়েছে। ৬৯ শতাংশ প্রতিষ্ঠান বলছে, মহামারী পার হয়ে গেলেও তারা কর্মীদের বাড়িতে বসে কাজের সুযোগ দিতে চায়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন