রবিবার | মে ০৯, ২০২১ | ২৬ বৈশাখ ১৪২৮

টকিজ

প্রডাকশন ডিজাইনে অস্কার মনোনয়ন পাওয়া ৫ ছবির গল্প

একটি সিনেমার ভালো-মন্দের অনেকটাই নির্ভর করে প্রডাকশন ডিজাইনের ওপর। আর তাই অস্কারে প্রডাকশন ডিজাইন ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পাওয়া চলচ্চিত্র নিয়ে আলোচনা হয় বেশি। প্রডাকশন ডিজাইন ক্যাটাগরিতে ২০২১ সালে অস্কারে মনোনয়ন পাওয়া পাঁচটি ছবির ডিজাইনার তাদের গল্প নিয়েই আয়োজন

ম্যাংক

প্রডাকশন ডিজাইনার: ডোনাল্ড গ্রহাম বার্ট

সেট ডেকোরেশন: জন প্যাসকেল

ছবিটির কাহিনী আবর্তিত হয়েছে চিত্রনাট্যকার হারম্যান ম্যাংকিউইকজের জীবন নিয়ে। ১৯৩৪ সালে নির্বাচনে রিপাবলিকান ফ্রাঙ্ক মেরিয়াম আপটন সিনক্লিয়ারকে পরাজিত করে। ছবিটি লস অ্যাঞ্জেলসের সিকাদা ক্লাবে চিত্রায়ণ করা হয়, যা সে সময়কার স্টাইল ফুটিয়ে তোলে।

ছবিটির প্রডাকশন ডিজাইনার বার্ট বলেন, তখনকার সত্যিকারের ছবির ওপর ভিত্তি করে এর গ্রাফিকস সাজানো হয়। এছাড়া টালিবোর্ড, মঞ্চ, আলোকসজ্জা পোশাক সবই তৈরি করা হয় সে সময়ের আলোকে। সেই নির্বাচনের ফলাফল টালি বোর্ডে প্রকাশ করা হয়। ফলে টালিবোর্ডও পুরনো ধাঁচে তৈরি করা হয়। আর এসবই বিস্তর গবেষণার ফল।

মা রাইনি ব্ল্যাক বটম

প্রডাকশন ডিজাইন: মার্ক রিকার

সেট ডেকোরেশন: রা দিয়ানা স্টফটোন

ছবিটি ১৯২৭ সালের শিকাগোর রিদম রেকর্ডিং স্টুডিওর বাইরের চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ব্লুজ শিল্পী মা রেইনিকে নিয়ে আগস্ট উইলসনের লেখা নাটকটি চলচ্চিত্রে রূপান্তর করেছে নেটফ্লিক্স।

মার্ক রিকার বলেন, শিকাগোর শিল্পাঞ্চলের ফ্যাক্টরি বিল্ডিংগুলোর চিত্র হুবহু ফুটিয়ে তুলতে আমরা দীর্ঘ গবেষণা করেছি। ব্লুজ সংগীত দলের সবার পোশাক, রাস্তার পাশের ঘরবাড়ি, ল্যামপোস্ট এবং সে সময়কার যানবাহন প্রতিটি বিষয়ের প্রতি আমাদের আলাদা নজর ছিল।

আধুনিক সময়ে পুরনো দিনের অনুভূতি ফিরিয় আনতে বিদ্যুতের লাইন শিকাগো শহরের দূরবর্তী স্কাইলাইনকে ভিজুয়াল ইফেক্ট দিয়ে মুছে দিতে হয়েছে বলে জানান রিকার।

দ্য ফাদার

প্রডাকশন ডিজাইনার: পিটার ফ্রান্সিস

সেট ডেকোরেশন: ক্যাথি ফেদারস্টোন

এক স্মৃতি হারানো বাবার চরিত্র নিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে সিনেমাটি আর চরিত্রে দেখা গেছে অ্যান্থনি হপকিনসকে। ছবিটির জন্য পশ্চিম লন্ডন ফিল্ম স্টুডিওর একটিমাত্র সেটে দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। এতে অ্যান্থনির লন্ডনের বাসা, তার মেয়ের বাসা একটি নার্সিং হোমের চিত্র দেখানো হয়েছে। অ্যান্থনি এক ঘর থেকে অন্য ঘরে গেলেই বিভ্রান্তিতে পড়ে যান, যা দর্শকদেরও বিভ্রান্ত করে। নার্সিং হোমকে পুরোপুরি ফুটিয়ে তুলতে নীল রঙ হালকা আলো ব্যবহার করা হয়।

পিটার ফ্রান্সিস বলেন, আমরা চেয়েছিলাম ছবির দর্শকের যেন মনে হয় তারা জায়গাটি চেনে। তবে রুমের আকার আয়তন যেন আগের দৃশ্যের চেয়ে আলাদা মনে হয়।

টেনেট

প্রডাকশন ডিজাইন: নাথান ক্রোলি

সেট ডেকোরেশন: লুকাস ক্রিস্টোফার

ক্রিস্টোফার নোলানের সিনেমায় মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন জন ডেভিড ওয়াশিংটন, যিনি পৃথিবীকে বাঁচাতে একটি অ্যালগরিদমের খোঁজে নামেন। নোলানের দীর্ঘদিনের সহযোগী ক্রোলি, যিনি ব্যাটমান বিগেইনিং, দ্য ডার্ক নাইট ইন্টারসেলারে কাজ করেছেন। তিনি বলেন, একটি বিস্ফোরণের আগে এখানেই অ্যালগরিদম সংরক্ষণ করা হয়েছিল। দৃশ্যটি ওয়ার্নার ব্রুসের স্টেজ-১৬-তে নির্মাণ করা হয়েছে। এটি ভূমি থেকে ৮০ ফুট উচ্চতার একটি প্রাচীর, যা দেখলেই যেন বোঝা যায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে একটি রেডিয়াল বিস্ফোরণে তৈরি হয়েছে।

নিউজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড

প্রডাকশন ডিজাইন: ডেভিড ক্র্যাঙ্ক

সেট ডেকোরেশন: এলিজাবেথ কেনান

ডেভিড ক্র্যাঙ্ক বলেন, বোনাঞ্জা ক্রিক র্যাঞ্চের রেড রিভার স্টেশন হলো সেই তিনটি জায়গার একটি, যেখানে পশ্চিমা গৃহযুদ্ধ-পরবর্তী দৃশ্যের শুটিং করা হয়। এজন্য আমরা চেষ্টা করেছি সেখানকার সব ভবন পরখ করে খুবই সাধারণভাবে চিত্র ফুটিয়ে তুলতে। র্যাঞ্চাগুলো যুদ্ধ-পরবর্তী সময়েও ব্যাবহূত হতো। ফলে আমরা যেমন চাইছিলাম তেমনটা ছিল না।

তিনি বলেন, গৃহযুদ্ধের চিত্র আঁকা কাচের প্লেটসহ লাইব্রেরি অব কংগ্রেস জাদুঘর ছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, ঐতিহাসিক স্থাপনা টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গবেষণাপত্র সংগ্রহ করে সে সময়ের ধারণা নিয়েছি আমরা।

 

সূত্র: হলিউড রিপোর্টার

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন