বুধবার | এপ্রিল ২১, ২০২১ | ৮ বৈশাখ ১৪২৮

টকিজ

দুই দানবের লড়াইয়ে চাঙ্গা সিনেমার আন্তর্জাতিক বাজার

ফিচার ডেস্ক

কভিড যুগে বক্স অফিসে রেকর্ড করেছে গডজিলা ভার্সেস কং ছবিটি। মুক্তির প্রথম দুই সপ্তাহে ছবিটি আয় করেছে ৩৮ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার। শুধু গত শুক্রবারেই সিনেমাটি আয় করেছে কোটি ১৬ লাখ ডলার। মুক্তির পর প্রথম পাঁচদিনে ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রে আয় করেছে প্রায় কোটি ডলার। এর মাধ্যমে ছবিটি পেছনে ফেলেছে ফ্র্যাঞ্চাইজির আগের ছবিগুলোর নির্দিষ্ট সময়ের আয়কে।

মহামারীর ধাক্কায় মন্দায় থাকা সিনেমা বাজারে মুক্তির প্রথম সপ্তাহে আয়ের রেকর্ড গড়েছে গডজিলা ভার্সেস কং। ছবিটি মুক্তির প্রথম তিনদিনে আয় করে কোটি ২০ লাখ ডলার। মহামারী আঘাত হানার পর প্রথম তিনদিনে কোটি ৬০ লাখ ডলার আয় করে রেকর্ড গড়েছিল ওয়ান্ডার উইম্যান নাইন্টিন এইটিফোর গত বছরের ক্রিসমাসের দিন মুক্তি পাওয়া ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রে ৪৫ দশমিক মিলিয়ন ডলার এবং সারা বিশ্বে ১৬৫ মিলিয়ন ডলার আয় করে।

২০২১ সালে জনপ্রিয় কমিক চরিত্র নিয়ে নির্মিত টম অ্যান্ড জেরি ছবিটি প্রথম তিনদিনে আয় করে কোটি ৪০ লাখ ডলার। অ্যানিমেটেড ছবিটি এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৩৭ মিলিয়ন বহির্বিশ্বে ৪৮ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে।

গডজিলা ভার্সেস কং প্রথম দিন আয় করে প্রায় কোটি ডলার, যা করোনাকালে যেকোনো সিনেমার একদিনে সর্বোচ্চ আয়। বর্তমানে এটি হাজার ৬৪টি হলে চলছে। এটা মহামারীর সময়ে সর্বোচ্চ হলে প্রদর্শনীরও একটি রেকর্ড। ১৬৫ মিলিয়ন ডলার বাজেটের ছবিটি সহপ্রযোজনা নির্মাণের দায়িত্বে ছিল লিজেন্ডারি এন্টারটেইনমেন্ট।

গডজিলা ভার্সেস কং সবচেয়ে বেশি ঝড় তুলেছে চীনে। গত সপ্তাহে চীনে ছবিটি আয় করেছে কোটি ডলার। দেশটিতে সব মিলিয়ে আয় করেছে ১২৩ মিলিয়ন ডলার।

সম্প্রতি শুধু গডজিলা ভার্সেস কং সিনেমাটিই মুক্তি পেয়েছে বিষয়টা এমন নয়। সনি পিকচার্সের ভৌতিক সিনেমা দ্য আনহোলি মুক্তি পেয়েছে সপ্তাহে। হাজার ৮৫০টি হলে মুক্তি পাওয়া ছবিটি প্রথম দিনে আয় করেছে ১১ লাখ ডলার, যা গডজিলা ভার্সেস কংয়ের প্রথম দিনের আয়ের তুলনায় বেশ কম।

গডজিলা ভার্সেস কং সিনেমাটি ঘরে বসে এইচবিও ম্যাক্সে দেখার সুযোগ রয়েছে। তার পরও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের দর্শকরা স্থানীয় মাল্টিপ্লেক্সে গিয়ে ছবি দেখছে। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, সিনেমার সুদিন ফিরে আসার ইঙ্গিত দিচ্ছে গডজিলা ভার্সেস কং ছবিটি।

 

সূত্র: ভ্যারাইটি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন