শুক্রবার | এপ্রিল ২৩, ২০২১ | ১০ বৈশাখ ১৪২৮

শিল্প বাণিজ্য

এফবিসিসিআই নির্বাচন

প্রার্থীদের ঋণখেলাপি তথ্য যাচাই করছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক

শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন এফবিসিসিআই নির্বাচনে পরিচালক প্রার্থীদের ঋণখেলাপি তথ্য যাচাই শুরু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। -সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সিআইবি প্রতিবেদন চেয়ে গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর বরাবর একটি চিঠি পাঠিয়েছে মন্ত্রণালয়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সৈয়দা নাহিদা হাবিবা স্বাক্ষরিত এপ্রিলের চিঠিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলেছে, বেসরকারি খাতের শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) পরিচালনা পর্ষদের ২০২১-২৩ মেয়াদে নির্বাচন আগামী মে অনুষ্ঠিত হবে। এফবিসিসিআইয়ের সংঘবিধির ১৫(সি) ধারা মোতাবেক এফবিসিসিআই নির্বাচনে ঋণখেলাপিদের অংশগ্রহণ নিষিদ্ধ রয়েছে, যা অনুসরণে প্রার্থীদের ঋণখেলাপি-সংক্রান্ত তথ্যাদি যাচাই করা প্রয়োজন।

এফবিসিসিআই নির্বাচনে (২০২১-২৩) পরিচালক পদে প্রার্থীদের সিআইবি-সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্য প্রেরণের লক্ষ্যে এফবিসিসিআই হতে প্রাপ্ত কাগজপত্র নির্দেশক্রমে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্সপ্রাপ্ত বাণিজ্য সংগঠনের বার্ষিক সভা কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠান বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গত মঙ্গলবার একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। ওই প্রজ্ঞাপনে অস্পষ্ট থাকায় যথাসময়ে নির্বাচন হওয়া নিয়ে সংশয় দেখা দেয়। তবে গতকাল বুধবার -সংক্রান্ত আরো একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। নতুন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী আগামী মে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এফবিসিসিআইয়ের নির্বাচন অনুষ্ঠানে কোনো বাধা নেই।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, কভিড-১৯-এর বিস্তার রোধে জনসমাগম এড়িয়ে চলার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্সপ্রাপ্ত সব বাণিজ্য সংগঠনের বার্ষিক সভা কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বৃদ্ধি করা হলো। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বাণিজ্য সংগঠনগুলোর নির্বাচন আগামী ৩১ মের মধ্যে সম্পন্ন করার বাধ্যবাধকতা ছিল।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, বর্ধিত সময়ের মধ্যে সব বাণিজ্য সংগঠন সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের সুবিধাজনক সময়ে সংগঠনের বার্ষিক সাধারণ সভা কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে পারবে। যেসব বাণিজ্য সংগঠন স্বাস্থ্যবিধি মেনে বার্ষিক সাধারণ সভা আয়োজন এবং নির্বাচন বোর্ড কর্তৃক ঘোষিত তফসিল মোতাবেক নির্বাচন প্রক্রিয়া চলমান রেখেছে, সেসব বাণিজ্য সংগঠনের বার্ষিক সভা নির্বাচন সম্পন্ন করতে কোনো বাধা নেই।

এফবিসিসিআই পরিচালনা পর্ষদের ২০২১-২৩ মেয়াদের নির্বাচনে পরিচালক পদে মোট ৮৩ জন প্রার্থী হয়েছেন। মোট পদের সংখ্যা ৮০টি। নির্বাচন বোর্ড সূত্র জানায়, এর মধ্যে মনোনীত পরিচালক পদে চেম্বার গ্রুপে ১৭টি অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপে ১৭টি পদের বিপরীতে ১৬ জন করে মোট ৩২ জন প্রার্থী হয়েছেন। দুটি মনোনীত পরিচালক পদে প্রার্থী দেয়নি গোপালগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সি-বায়রা। অন্যদিকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হওয়ার জন্য চেম্বার গ্রুপের ২৩ পদের বিপরীতে ২৫ জন এবং অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ২৩ পদের বিপরীতে ২৬ জন প্রার্থী হয়েছেন।

বাংলাদেশ শিল্প বণিক সমিতি ফেডারেশন-এফবিসিসিআই নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডে চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এমপিসহ নির্বাচন বোর্ডের সদস্যদের স্বাক্ষরিত প্রার্থী তালিকায় তথ্য পাওয়া গেছে। তফসিল অনুযায়ী, আগামী মে পরিচালক পদে ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। গত বুধবার নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিনে মোট ৮৩ জন পরিচালক প্রার্থী হয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন