শুক্রবার | এপ্রিল ২৩, ২০২১ | ১০ বৈশাখ ১৪২৮

শেয়ারবাজার

টানা তিন কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী সূচক

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশব্যাপী চলা লকডাউনের তৃতীয় দিনেও ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে পুঁজিবাজারে। সব মিলিয়ে লকডাউন শুরু হওয়ার পর টানা তিনদিন ধরেই ঊর্ধ্বমুখিতা বিরাজ করছে পুঁজিবাজারে। গতকাল দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে শতাংশের বেশি। পাশাপাশি দৈনিক লেনদেনের পরিমাণও বেড়েছে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গতকাল লেনদেনের শুরুতেই ঊর্ধ্বমুখী ছিল সূচক। মাঝে কিছুটা নিম্নমুখিতা দেখা গেলেও গতকাল দিনশেষে ডিএসইএক্স ৫৬ পয়েন্ট বেড়ে হাজার ৩৩৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে, যা এর আগের দিন ছিল হাজার ২৮১ পয়েন্টে। গতকাল সূচকের সবচেয়ে বেশি ভূমিকা ছিল ব্র্যাক ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, সিটি ব্যাংক, আইএফআইসি লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের। ডিএসইর শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস গতকাল প্রায় ১০ পয়েন্ট বেড়ে দিন শেষে হাজার ২১৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে, যা আগের দিন ছিল হাজার ২০৫ পয়েন্টে। ব্লু-চিপ সূচক ডিএস-৩০ দিনের ব্যবধানে প্রায় ২৩ পয়েন্ট বেড়ে গতকাল হাজার ১১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে, আগের দিন শেষে যা ছিল হাজার ৯৮৮ পয়েন্টে।

গতকাল এক্সচেঞ্জটিতে ঘণ্টায় মোট ৫৮২ কোটি ৫০ লাখ টাকার সিকিউরিটিজ হাতবদল হয়েছে, আগের কার্যদিবসে যা ছিল ৫০৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪৪টি কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড করপোরেট বন্ডের মধ্যে দিন শেষে দর বেড়েছে ১৯৯টির, কমেছে ৪৩টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১০২টি সিকিউরিটিজের বাজারদর।

খাতভিত্তিক লেনদেনচিত্রে দেখা যায়, গতকাল ডিএসইর মোট লেনদেনের ২৭ দশমিক শতাংশ দখলে নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে সাধারণ বীমা খাত। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ দশমিক শতাংশ দখলে নিয়েছে ব্যাংক খাত। ১০ শতাংশ লেনদেনের ভিত্তিতে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বিবিধ খাত। আর দশমিক শতাংশ লেনদেনের ভিত্তিতে চতুর্থ অবস্থানে ছিল ওষুধ রসায়ন খাত।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষ সিকিউরিটিজ ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড, রবি আজিয়াটা, এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, লংকবাংলা ফাইন্যান্স, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ, আইএফআইসি ব্যাংক বিএটিবিসি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন