বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ২২, ২০২১ | ৯ বৈশাখ ১৪২৮

শেষ পাতা

শনাক্ত বেড়েছে

২৪ ঘণ্টায় কভিডে মৃত্যু আরো ১৪ জনের

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে গত বছরের মার্চ প্রথম নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। হিসেবে গতকাল ছিল সংক্রমণ শনাক্তের দ্বিতীয় বছর। দ্বিতীয় বছরের প্রথম দিনে শনাক্ত মৃত্যুদুই- বেড়েছে। কভিডে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১৪ জন প্রাণ হারিয়েছেন। নিয়ে মহামারীতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল হাজার ৪৭৬ জনে। এর আগের দিন রোববার মৃতের সংখ্যা ছিল ১১ জনে। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ২১৯টি ল্যাবরেটরিতে ১৬ হাজার ৬৬০টি নমুনা সংগ্রহ ১৬ হাজার ৯৫৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৪১ লাখ ৬৩ হাজার ১৬৩টি। সময়ের মধ্যে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরো ৮৪৫ জন। দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা লাখ ৫১ হাজার ১৭৫। এর আগের দিন রোববার শনাক্ত হয়েছিল ৬০৬ জন।

এদিকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন হাজার ১১৭ জন। পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন লাখ হাজার ১২০ জন। এর আগের দিন রোববার সুস্থ হয়েছেন হাজার ৩৭ জন।

পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ দশমিক শূন্য ২৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার দশমিক ৫৪ শতাংশ। কভিডে মৃত ১৪ জনের বয়স বিশ্লেষণে দেখা গেছে, চল্লিশোর্ধ্ব দুজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব চারজন এবং ষাটোর্ধ্ব আটজন রয়েছেন। বিভাগওয়ারি হিসেবে, মৃত ১৪ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ছয়জন চট্টগ্রামে আটজন মারা যান।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যমতে, বিশ্বে সংক্রমণের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম এবং মৃত্যুর তালিকায় ৩৯তম। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর চীনে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর গত বছর ১১ জানুয়ারি বিশ্বে প্রথম করোনায় মারা যান ৬১ বছর বয়সী এক চীনা নাগরিক। দুই মাসের মধ্যে শতাধিক দেশে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়লে গত বছর ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যু হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন