বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ২২, ২০২১ | ৯ বৈশাখ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

কয়লাভিত্তিক প্রকল্প থেকে সরে এল মিৎসুবিশি

বণিক বার্তা ডেস্ক

বিশ্বব্যাপী পরিবেশ সংরক্ষণের প্রতি সচেতনতার অংশ হিসেবে ভিয়েতনামের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র থেকে নিজেদের সরিয়ে নিল জাপানের মিৎসুবিশি করপোরেশন। সেই সঙ্গে আগামীতে কয়লাভিত্তিক যেকোনো প্রকল্পে নিজেদের বিনিয়োগ সীমিত করার কথাও জানায় প্রতিষ্ঠানটি। খবর রয়টার্স।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতি সচেতনতার অংশ হিসেবে ভিয়েতনামের দক্ষিণ প্রদেশের বিন থুয়ান অঞ্চলে অবস্থিত গিগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন ভিন টান প্রকল্প থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

এক বিবৃতিতে ভিন টান প্রকল্পটির নাম উল্লেখ না করে মিৎসুবিশি জানায়, আন্তর্জাতিক জলবায়ু সংরক্ষণ উদ্যোগের প্রতি সমর্থন জানিয়ে তারা কয়লাভিত্তিক প্রকল্পে বিনিয়োগ কমিয়ে আনছে। প্রকল্পটি ২০২৪ সালে উৎপাদনে যাওয়ার কথা ছিল।

ভিয়েতনামের মধ্য প্রদেশের হা থিন অঞ্চলে আরেকটি কয়লা ভিত্তিক ভিন টান প্রকল্পেও মিৎসুবিশির বিনিয়োগ আছে। এটি বিনিয়োগকারী পরিবেশ কর্মীদের কাছে ভিন টান -এর চেয়েও সুপরিচিত। মিৎসুবিশির উদ্যোগ কয়লাভিত্তিক কোনো প্রকল্প থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয়ার প্রথম পদক্ষেপ। সেই সঙ্গে ভিন টান -এর পর তারা ধরনের প্রকল্পে নতুন করে আর কোনো বিনিয়োগ করবে না।

ভিন টান কোনো জাতীয় প্রকল্প না হওয়ার কারণে সরে যাওয়া সহজ হয়েছে। প্রকল্পটিতে ওয়ান এনার্জি হংকংভিত্তিক সিএলপি গ্রুপের ৪৯ শতাংশ অংশীদারিত্ব ছিল। ভিয়েতনামের রাষ্ট্রীয় সংস্থা ভিয়েতনাম ইলেকট্রিসিটি প্রকল্পের ২৯ শতাংশের অংশীদার ছিল।

বাকি অংশীদারিত্বের আলোকে চীনা কোম্পানিগুলো মালামাল, নির্মাণ যন্ত্রাংশ সরবরাহের দায়িত্বে ছিল। প্রকল্পটিতে ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড এইচএসবিসি ব্যাংকের আর্থিক অংশীদারিত্বও ছিল। দুই বিলিয়ন ডলারের প্রকল্পটি থেকে সরে দাঁড়ানো প্রমাণ করে জাপানিজ কোম্পানি বিনিয়োগকারীরা জলবায়ু সচেতনতার প্রতি যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন