বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ২২, ২০২১ | ৯ বৈশাখ ১৪২৮

প্রথম পাতা

উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে চূড়ান্ত সুপারিশ

এ কৃতিত্ব দেশের জনসাধারণের: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ পাওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কৃতিত্ব দেশের  জনসাধারণের। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা মাইলফলক অর্জন করতে পেরেছি।

তিনি বলেন, আজ অবশ্য আমি আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি বাংলাদেশের একটি মহৎ গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের সুসংবাদ দেয়ার জন্য। বাংলাদেশ গতকাল (শুক্রবার) স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার পূর্ণ যোগ্যতা অর্জন করেছি। আমাদের উত্তরণ এমন এক সময় ঘটল, যখন আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি; আমরা মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে। বাংলাদেশের জন্য উত্তরণ এক ঐতিহাসিক ঘটনা।

গতকাল বিকালে বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ বা এলডিসি তালিকা থেকে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে সংবাদ সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে আমাদের মাথাপিছু আয় হাজার ৬৪ ডলার। মানবসম্পদ সূচকে নির্ধারিত মানদণ্ড ৬৬-এর বিপরীতে বাংলাদেশের অর্জন ৭৫.৪। অর্থনৈতিক পরিবেশগত ভঙ্গুরতা সূচকে উত্তরণের জন্য মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ৩২ বা তার কম। কিন্তু ওই সময়ে এক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ২৭।

সংবাদ সম্মেলনে গণভবন প্রান্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার ছোট বোন শেখ রেহানা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি তথ্যমন্ত্রী . হাছান মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন। গণভবন প্রান্তে সভা পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব . আহমদ কায়কাউস। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় প্রান্তে সভা পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। সেখানে মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, বিভিন্ন গণমাধ্যমের শীর্ষ ব্যক্তি সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন