শুক্রবার | এপ্রিল ২৩, ২০২১ | ১০ বৈশাখ ১৪২৮

টকিজ

প্রতিবাদের মুখে কিংবা দর্শক টানতে

নাম বদলেছিল বলিউডের যে ছবিগুলো

ফিচার ডেস্ক

রাজকুমার রাও জাহ্নবী কাপুরের হরর-কমেডি ছবি রুহি মুক্তি পাবে আগামী ১১ মার্চ। ছবির নাম রুহি হওয়ার আগে দুবার এর নাম পরিবর্তন হয়েছিল। ছবিটির নাম শুরুতে ছিল রুহি আফজা, নাম বদলে হয় রুহি আফজানা এবং শেষমেশ ঠিক হয় রুহি। এর আগেও বলিউডের অনেক ছবির নাম মুক্তির আগে বদলে গিয়েছিল। সে রকম কয়েকটি ছবির নাম এখানে দেখে নেয়া যাক

লক্ষ্মী বম্ব থেকে লক্ষ্মী

রাজপুত করণি সেনার আইনি নোটিসের পর বদলে যায় অক্ষয় কুমারের লক্ষ্মী বম্ব ছবির নাম। নতুন নাম হয় শুধু লক্ষ্মী। নোটিসে বলা হয়, ছবির নামটি দেবি লক্ষ্মীর প্রতি অবমাননাকর। তাই ছবির নাম পরিবর্তনের দাবি ওঠে।

পদ্মাবতী থেকে পদ্মাবত

ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই সঞ্জয় লীলা বানসালির ছবিটি বিতর্কের জন্ম দেয়। ছবির বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদও হয়। রাজপুত করণি সেনাসহ অনেক সংগঠন ছবিটি মুক্তির আগে থেকেই প্রতিবাদ জানাতে থাকে যে ছবিতে রাজপুত রানী পদ্মাবতীকে নেতিবাচক হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। এরপর নামসহ কিছু পরিবর্তনের মাধ্যমে ছবিটি ২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি মুক্তি পায়। ছবির নাম পদ্মাবতী থেকে হয়ে যায় পদ্মাবত।

রামলীলা থেকে গোলিও কি রাসলীলা রাম-লীলা

সঞ্জয় লীলা বানসালির আরেকটি ছবিরও নাম পরিবর্তন হয়েছিল। শুরুতে ছবির নাম ছিল রামলীলা। মধ্য প্রদেশের হাইকোর্টে ছবিটির নাম ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে এমন অভিযোগ জানানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ছবির নাম দেয়া হয় রাম-লীলা। কয়েক মাস পর ছবির নতুন নাম হয় গোলিও কি রাসলীলা রাম-লীলা এবং নামেই ছবিটি মুক্তি পায়।

বিল্লু বার্বার থেকে বিল্লু

ইরফান খান অভিনীত ছবিটির নাম শুরুতে ছিল বিল্লু বার্বার। মুম্বাইয়ের স্যালুন বিউটি পার্লার অ্যাসোসিয়েশন ছবির নামকে তাদের পেশার প্রতি অবমাননাকর বলে মন্তব্য করে। তাদের আপত্তির মুখে ছবির নাম দেয়া হয় বিল্লু।

মেন্টাল হ্যায় কেয়া থেকে জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া

মেন্টাল হ্যায় কেয়া নামটিকে অনেকে মানসিক রোগে আক্রান্তদের প্রতি অবমাননাকর বলে এর সমালোচনা করেন। সমালোচনা আমলে নিয়ে কঙ্গনা রানাওয়াত রাজকুমার রাওয়ের ছবির নির্মাতারা এর নাম পরিবর্তন করে রাখেন জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া। ইন্ডিয়ান সাইকিয়াট্রিক সোসাইটি ছবির নামটির সমালোচনা করে এবং তারা ইন্ডিয়ান বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশনকে ছবিটির নাম পরিবর্তনের অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয়। ছবিটি মুক্তি পায় জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া নামে।

লাভরাত্রি থেকে লাভযাত্রী

লাভরাত্রি নামটির বিরুদ্ধে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ প্রতিবাদ জানানোর পর ছবির নাম পরিবর্তন করে লাভযাত্রী করা হয়। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের অভিযোগ ছিল হিন্দু উৎসব নবরাত্রির অর্থ ছবির নামের মাধ্যমে বিকৃত করা হয়েছে। ছবিটির প্রযোজক ছিলেন সালমান খান।

ইয়ে কাহা গায়ে হাম থেকে বীর-জারা

বিতর্ক কিংবা কোনো সংগঠনের প্রতিবাদের মুখে ছবির নাম পরিবর্তন যেমন হয়, তেমনি অনেক সময় নির্মাতা দর্শককে আকর্ষণ করতেও শেষ মুহূর্তে ছবির নাম পরিবর্তন করেন। রকম একটি ছবি শাহরুখ খান প্রীতি জিনতার বীর-জারা। ছবির নাম শুরুতে ছিল ইয়ে কাহা গায়ে হাম, ১৯৮১ সালে মুক্তি পাওয়া সিলসিলা ছবির একটি গান অনুসরণ করে নামটি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু ছবি মুক্তির আগে যশ চোপড়ার মনে হয় বীর-জারা নামটিই ছবির জন্য অধিকতর উপযুক্ত হবে।

এছাড়া বলিউডের বড় তারকাদের আরো কয়েকটি ছবির নাম মুক্তির আগে আগে বদলে গিয়েছিল। এর মধ্যে আছে সাইফ আলী খান দীপিকা পাড়ুকোনের লাভ আজ কাল ছবির নাম শুরুতে ছিল ইলাস্টিক। দীপিকা রণবীর কাপুর অভিনীত উইন্ডো সিটের নাম বদলে হয়ে যায় তামাশা।

 

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন