শুক্রবার | এপ্রিল ২৩, ২০২১ | ১০ বৈশাখ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক খবর

ব্রিটেনে ফেরার অনুমতি পেলেন না সেই শামীমা

বণিক বার্তা অনলাইন

পালিয়ে সিরিয়া গিয়ে ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেয়া ব্রিটিশ কিশোরী শামীমা বেগম তার নাগরিকত্বে দাবি নিয়ে লড়াইয়ের জন্য দেশে ফিরতে পারবেন না। আজ বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের সুপ্রিমকোর্ট তাকে ফিরতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে মাত্র ১৫ বছর বয়সে বন্ধুদের সঙ্গে সিরিয়া পালিয়ে যান বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক শামীমা।  সেখানে আইএসের এক জঙ্গির সঙ্গে তার বিয়ে হয়। 

সিরিয়ায় আইএসের পতনের পর তিনি দেশে ফেরার চেষ্টা করেন। কিন্তু এরই মধ্যে যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিল করে।  তার মা যেহেতু বাংলাদেশী এই যুক্তিতে তাকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়ার কথা বলে ব্রিটেন।  এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, শামীমার জন্ম ব্রিটেনেই। তাকে বাংলাদেশে ফিরতে দেয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই লড়তে দেশে ফেরার আবেদন করেছিলেন শামীমা।  বিষয়টি এতোদিন আদালতের রায়ের অপেক্ষায় ছিল।

বর্তমানে ২১ বছর বয়সী শামীমা উত্তর সিরিয়ায় সশস্ত্র রক্ষীদের নিয়ন্ত্রণাধীন একটি শরণার্থী শিবিরে আছেন। সেখান থেকে তিনি তার আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলতে কিংবা ভিডিও কলের মাধ্যমে শুনানিতে অংশ নিতে পারছেন না।

সিরিয়ায় আইএস উৎখাত অভিযানে আশ্রয় হারিয়ে শামীমার এই শরণার্থী শিবিরে ঠাঁই হয়।  সেখানে তার একটি সন্তানও হয়েছিল, তবে পরে মারা যায়।

সূত্র: বিবিসি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন