মঙ্গলবার | এপ্রিল ২০, ২০২১ | ৬ বৈশাখ ১৪২৮

দেশের খবর

ওভারটেক করতে গিয়ে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৭

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, সিলেট

সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের রশিদপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছেন।  আজ শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার রশিদপুর সেতুর কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, সকাল ৭টার দিকে সিলেটগামী লন্ডন এক্সপ্রেস ও ঢাকাগামী এনা পরিবহনের মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ৪ জন মারা যান। এছাড়া হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও ৩ জন মারা যান। এই দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

ওসি বলেন, নিহতদের মধ্যে দুই বাসের চালকও রয়েছেন। হতাহতদের উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে ছয়জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সালমান খান (২৮), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের নুরুল আমিন (৫০), সাগর (১৯), সিলেটের ওসমানী নগরের মঞ্জুর আহমদ মঞ্জু(৩৫), একই উপজেলার জাহাঙ্গির হোসেন (৩০), চুয়াডাঙ্গার ডা. আল মাহমুদ সাদ ইমরান খান (৪৮)। 

এদের মধ্যে মঞ্জু এনা পরিবহনের চালক ও জাহাঙ্গির তার সহযোগী। নুরুল আমিন লন্ডন এক্সপ্রেসের সুপারভাইজার আর ডা. ইমরান উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রভাষক।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনায় দুটি বাসের সামনে অংশ দুমড়ে মুছড়ে যায়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ। তারা প্রায় একঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে।

দুর্ঘটনার পর কিছু সময় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও এখন বাস চলাচল অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, সিলেটের উপপরিচালক কোবাদ আলী সরকার। তিনি বলেন, এই দুর্ঘটনার ৮ জন নিহত হয়েছে বলে শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত ৭ জনের লাশ পেয়েছি। আরেক শিশুকে আমরা মূমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করেছি। সে হাসপাতালে গিয়ে মারা গেছে বলে শুনেছি। তবে এখনও নিশ্চিত হতে পারিনি।

দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে কোবাদ আলী সরকার বলেন, গাড়ি সবসময় রাস্তায় বাঁ পাশ দিয়ে চলার কথা। কিন্তু দুর্ঘটনা কবলিত লন্ডন এক্সপ্রেস বাঁ পাশ ছেড়ে ডান পাশে চলে যায়। ডান পাশে গিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা এনা বাসকে ধাক্কা দেয়।

তিনি বলেন, সকালে খুব বেশি কুয়াশা ছিল না। ধারণা করছি, ব্রিজ ক্রস করতে গিয়ে লন্ডন এক্সপ্রেসের চালক স্ট্রিয়ারিংয়ের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এতে বাসটি ভুল ট্র্যাকে চলে যায়। একারণেই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। তবে দুর্ঘটনার আসল কারণ পরবর্তীতে তদন্তে জানা যাবে।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই জয়নাল আবেদীন জানান, হাসপাতালে ৭টি মরদেহ এসেছে। পোস্টমর্টেমের জন্য লাশগুলো হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে সবার নাম এখনো জানা যায়নি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন