মঙ্গলবার | এপ্রিল ২০, ২০২১ | ৬ বৈশাখ ১৪২৮

ফিচার

অর্ধেক নর-অর্ধেক নারী: বিরল পাখির দেখা মিললো যুক্তরাষ্ট্রে

বণিক বার্তা অনলাইন

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে দেখা মিলেছে এক অদ্ভুত কার্ডিনাল পাখির। পাখিটি না নর, না নারী; বরং দুই লিঙ্গের বৈশিষ্ট্যই তার ভেতর বিদ্যমান।  সোজা কথায় হিজড়া!

পাখি বিশারদ জেমি হিল এই কার্ডিনালকে শনাক্ত করেছেন।

পেনসিলভানিয়ার ওয়ারেন কাউন্টি থেকে জেমি হিলের এক বন্ধু জানান, তার বাড়ির বাইরে অদ্ভুত ধরনের একটি পাখি এসেছে। তিনি নিজের সেলফোনে ছবি তুলে তা হিলকে পাঠান। প্রথমে এই পাখি বিশারদ ভেবেছিলেন, পাখিটি বুঝি পালকের রঙ হারিয়েছে। পরে বুঝতে পারেন আসলে এটি ‘বাইলেটেরাল গায়নানড্রোমরফিজম’ অর্থাৎ এমন এক বিশেষ শারীরিক অবস্থা যেখানে একটি পাখির শরীরে ডিম্বাশয় ও শুক্রাশয় দুটিই কার্যকর।

বিষযটি বুঝতে পেরে দ্রুত বন্ধুর বাড়ি যান জেমি হিল। তারপর পাখিটির বেশকিছু ছবি তোলেন তিনি। 

সাধারণত, পুরুষ কার্ডিনালের গায়ের রঙ হয় উজ্জ্বল লাল, আর নারী কার্ডিনালরা হয় ফ্যাকাসে বাদামি রঙের। তবে যে পাখিটির ছবি দেখা যাচ্ছে সেটির গায়ের রঙ লাল ও বাদামি মিশ্রিত। রঙই বলে দেয় যে, এটি অর্ধেক নর, অর্ধেক নারী।

ছবি তোলার পর ভীষণ উত্তেজিত ছিলেন জেমি। দ্রুত বাড়ি ফিরে নিজের তোলা ছবিগুলো পর্যালোচনা করেন তিনি। 

পাখিদের ক্ষেত্রে এমন উভলিঙ্গের হওয়াটা বেশ বিরল বলে জানান ওয়েস্টার্ন ইলিনয়েস ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ব্রায়ান পির। তিনি বলেন, অনেক ক্ষেত্রে কোনো পাখি উভলিঙ্গ কিনা সেটা জানাও যায় না। তবে নর্দার্ন কার্ডিনালের ক্ষেত্রে এমন হলে সেটা আলাদা করা যায়। কারণ এই পাখির পুরুষ ও নারীর রঙ আলাদা। তাই যখন কোনো উভলিঙ্গ কার্ডিনালের জন্ম হয় তখন তাকে বাইরে থেকে দেখেই প্রাথমিকভাবে অনুমান করা যায়। সাধারণত, কোষ বিভাজনের সময় কোনো ভুলের কারণে এই ধরনের পাখির জন্ম হয় বলেও জানান এই অধ্যাপক।  একটি ডিম্বাণুকে দুটি আলাদা শুক্রাণু নিষিক্ত করলে উভলিঙ্গ প্রাণির জন্ম হতে পারে।

অবশ্য উভলিঙ্গ কার্ডিনাল পাখির শনাক্তের ঘটনা এটিই প্রথম নয়।  ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের তথ্য মতে, ২০১৯ সালে এক দম্পতি একই ধরনের পাখি দেখেছিলেন।

সূত্র: বিবিসি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন