বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ২২, ২০২১ | ৯ বৈশাখ ১৪২৮

প্রথম পাতা

বিশ্বব্যাপী কোভ্যাক্স কার্যক্রমের টিকা বণ্টন শুরু

প্রথম চালান ঘানায়

বণিক বার্তা ডেস্ক

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) কোভ্যাক্স কার্যক্রমের আওতায় টিকা বণ্টন শুরু হয়েছে। দরিদ্র উন্নয়নশীল দেশগুলোয় কভিড-১৯-এর টিকার প্রাপ্যতা নিশ্চিতে কার্যক্রম হাতে নিয়েছিল ডব্লিউএইচও। কার্যক্রমের আওতায় বণ্টনকৃত টিকার প্রথম চালান গতকালই আফ্রিকার ঘানায় পৌঁছেছে। খবর বিবিসি।

ডব্লিউএইচও জাতিসংঘের শিশু তহবিল এক যৌথ বিবৃতির মাধ্যমে তথ্য নিশ্চিত করেছে। বিবৃতির ভাষ্যমতে, কোভ্যাক্স সুবিধার ছয় লাখ ডোজ টিকা নিয়ে একটি ফ্লাইট গতকালই ঘানার রাজধানী আক্রায় পৌঁছেছে। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত এসব টিকা ভারতের ইনস্টিটিউটে প্রস্তুত করা হয়েছে।

কভিড-১৯-কে মহামারী ঘোষণার কিছুদিনের মাথায় কোভ্যাক্স কর্মসূচি হাতে নেয় ডব্লিউএইচও ইউনিসেফ। বিশ্বব্যাপী করোনার টিকার প্রাপ্যতা বাড়াতে উদ্যোগ নেয়া হয়। উদ্যোগ গ্রহণের ঠিক আট মাস পর কর্মসূচির অধীনে টিকার প্রথম চালান সরবরাহ করা হলো।

স্বাস্থ্যকর্মীসহ মহামারীকালে সম্মুখসারিতে দায়িত্ব পালনকারী পেশায় নিয়োজিতদের দিয়ে টিকার প্রয়োগ শুরু করছে ঘানা। দেশটির স্বাস্থ্য খাতসংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে গত শুক্রবার -সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়।

নিয়ে ঘানায় ইউনিসেফ প্রতিনিধি অ্যান ক্ল্যারে ডুফে ডব্লিউএইচওর প্রতিনিধি ফ্রান্সিস কাসোলো স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, এটি একটি স্মরণীয় মুহূর্ত। এটি দুর্যোগপূর্ণ সময়ে মহামারীর অবসান ঘটাতে ঘানাকে সাহায্য করবে। ছয় লাখ ডোজ টিকা নিম্ন মধ্য আয়ের দেশগুলোয় ভ্যাকসিন সরবরাহের উদ্যোগ বাস্তবায়নের পথে প্রথম পদক্ষেপ।

চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত কোভ্যাক্স কর্মসূচির আওতায় ২৩০ কোটি ডোজ টিকা সরবরাহের লক্ষ্য নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৮০ কোটি ডোজ দরিদ্র দেশগুলোর ২০ শতাংশ জনগণকে বিনা মূল্যে সরবরাহ করা হবে। তবে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, দেশে দেশে হার্ড ইমিউনিটি তৈরির পাশাপাশি সংক্রমণ ছড়ানো থেকে সুরক্ষা দিতে  পরিমাণ ভ্যাকসিন পর্যাপ্ত নয়।

পাশাপাশি, আফ্রিকার ৬০ শতাংশ জনগণের জন্য টিকা নিশ্চিতে চেষ্টা করছে আফ্রিকান ইউনিয়নও (এইউ) এইউর ভ্যাকসিন কমিটি জানায়, অঞ্চলটির জন্য ২৭ কোটি ডোজ টিকা নিশ্চিত করেছে তারা। এসব টিকা অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার জনসন অ্যান্ড জনসনের তৈরি বলেও জানায় তারা।

অন্যদিকে, চীন এরই মধ্যে জিম্বাবুয়ে একুয়াটোরিয়াল গিনিতে সিনোফার্মের টিকা অনুদান হিসেবে পাঠিয়েছে। এইউকে ৩০ কোটি ডোজ স্পুটনিক-ভি অনুদানের প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া। টিকার পাশাপাশি আর্থিক অনুদানের প্রস্তাবও দিয়েছে রাশিয়া। তবুও আফ্রিকান অনেক দেশ কোভ্যাক্স কর্মসূচির ওপর নির্ভরশীল।

২০২০ সালের জুনে ডব্লিউএইচও, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনাইজ অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন, কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস ইনোভেশনস এবং ইউনিসেফের যৌথ উদ্যোগে কোভ্যাক্স শুরু হয়। চলতি মাসে ১৪৫টি দেশে ৩৩ কোটি ডোজ টিকা নিশ্চিত করবে কোভ্যাক্স, যার অধিকাংশই পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর জন্য।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন