মঙ্গলবার | মার্চ ০৯, ২০২১ | ২৫ ফাল্গুন ১৪২৭

শেয়ারবাজার

প্রথমার্ধে আমান ফিডের ইপিএস বেড়েছে ৩.৭৫%

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) আমান ফিড লিমিটেডের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে টাকা ৬৬ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল টাকা ৬০ পয়সা। সেই হিসাবে আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে দশমিক ৭৫ শতাংশ। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে তথ্য জানা গেছে।

সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৭৭ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৭৫ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩৬ টাকা ৪৬ পয়সা।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১২ দশমিক শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে আমান ফিড লিমিটেড। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ বাকি দশমিক শতাংশ স্টক লভ্যাংশ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে টাকা ৭১ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল টাকা ৭৫ পয়সা। ৩০ জুন প্রতিষ্ঠানটির এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৩৪ টাকা ৮০ পয়সা, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৩২ টাকা ৫৪ পয়সা।

২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১২ দশমিক শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল আমান ফিড। তার আগের তিন হিসাব বছরে ২০ শতাংশ নগদের পাশাপাশি ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ পেয়েছিলেন কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা।

ডিএসইতে গতকাল আমান ফিড শেয়ারের সর্বশেষ সমাপনী দর ছিল ২৯ টাকা ৮০ পয়সা। গত এক বছরে শেয়ারটির দর ২২ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ৩৭ টাকা ৫০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করেছে।

২০১৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আমান ফিডের অনুমোদিত মূলধন ১৫০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ১২৭ কোটি ৭৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ২৩৬ কোটি লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ১২ কোটি ৭৭ লাখ ৭৬ হাজার। এর ৬৩ দশমিক ২৬ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে। এছাড়া ১৪ দশমিক ৪৬ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, দশমিক ১২ শতাংশ বিদেশী বাকি ২২ দশমিক ১৬ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত দশমিক ৯৫, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে যা দশমিক ৯৮।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন