বুধবার | মার্চ ০৩, ২০২১ | ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭

পণ্যবাজার

৭৫ ডলারে পৌঁছতে পারে ব্রেন্টের ব্যারেল

বণিক বার্তা ডেস্ক

আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম বাড়তির পথে রয়েছে। ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) জ্বালানি পণ্যটির দাম আরো বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে মার্কিন বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস। প্রতিষ্ঠানটির পূর্বাভাস অনুযায়ী, জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ৭৫ ডলারে উঠতে পারে। এর মধ্য দিয়ে বৈশ্বিক জ্বালানি তেল খাতে করোনাকালীন লোকসান অনেকটাই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে। খবর রয়টার্স অয়েলপ্রাইসডটকম।

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বর্তমানে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ৬৫ ডলারের ওপরে অবস্থান করছে। পরিস্থিতিতে গোল্ডম্যান স্যাকস বলছে, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম বর্তমানের তুলনায় আরো ১০ ডলার বেড়ে ৭৫ ডলারে পৌঁছতে পারে। দ্রুত বাজারে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে প্রত্যাশার তুলনায় কম জ্বালানি তেল উত্তোলনের জের ধরে তৃতীয় প্রান্তিক নাগাদ জ্বালানি পণ্যটির এমন মূল্যবৃদ্ধি নিশ্চিত করা সম্ভব হবে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি।

গোল্ডম্যান স্যাকসের বাজার বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, মূল্যবৃদ্ধির বর্তমান ধারা অব্যাহত থাকলে চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিক (এপ্রিল-জুন) নাগাদ প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ৭০ ডলারে উন্নীত হওয়ার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে। তৃতীয় প্রান্তিকে গিয়ে জ্বালানি পণ্যটির দাম আরো বাড়তে পারে। ব্যারেলপ্রতি আরো ডলার বেড়ে তা ৭৫ ডলারে পৌঁছতে পারে।

এক নোটে গোল্ডম্যান স্যাকসের বিশ্লেষকেরা জানান, শীত মৌসুমে প্রত্যাশার তুলনায় জ্বালানি তেল উত্তোলন অনেক কম হয়েছে। অর্গানাইজেশন ফর দ্য পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ (ওপেক) এর মিত্র দেশগুলোর জোট ওপেক প্লাসের আওতায় এখনো জ্বালানি পণ্যটির বৈশ্বিক উত্তোলনে লাগাম টেনে রাখা হয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের কাঙ্ক্ষিত মূল্যবৃদ্ধিতে এটা প্রভাবক হিসেবে কাজ করছে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, করোনাকালীন সংকট কাটিয়ে উঠতে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল উত্তোলনকারী দেশগুলো উত্তোলন বাড়াতে আগ্রহী। তবে তাদের অবশ্যই বাজারের বাস্তব পরিস্থিতি বিবেচনায় নিতে হবে। বর্তমানে জ্বালানি তেলের দাম একটু একটু করে বাড়ছে। দীর্ঘমেয়াদে পরিস্থিতি বজায় থাকলে বিনিয়োগকারীরা জ্বালানি তেলের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবেন। এতে উপকৃত হবে সামগ্রিক অর্থনীতি। তাই বাজারের বাস্তব পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এখন অপরিশোধিত জ্বালানি তেল উত্তোলনে সাময়িক লাগাম টেনে ধরা বেশি লাভজনক বিবেচিত হচ্ছে।

গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম আগের দিনের তুলনায় দশমিক ৪৬ শতাংশ বেড়ে ব্যারেলপ্রতি ৬৫ ডলার ৫৪ সেন্টে উঠেছে। একই সময়ে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) দাম আগের দিনের তুলনায় দশমিক ৪২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ব্যারেলপ্রতি ৬১ ডলার ৯৬ সেন্টে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন