রবিবার | ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

ফিচার

লেভাইসের ফিট নম্বরগুলো কী নির্দেশ করে?

সানজিদা সামরিন

আমেরিকান পোশাক ব্র্যান্ড লেভাইস ডেনিম জিন্সের জন্য বিশ্বব্যাপী পরিচিত। লেভাইসের দোকানে গিয়ে অনেকেই বিভ্রান্তিতে পড়েন প্যান্টের পেছনের লেবেলে লেখা ৫১১, ৫০১, ৭১০ বা ৩১১ সিরিজের নম্বরগুলো দেখে। কী অর্থ বহন করে এই নম্বরগুলো? 

ক্রেতারা যে ধরনের জিন্স কিনতে চান, এই নম্বরগুলো সে ধরনের জিন্স কিনতে সহায়তা করে। হাই-রাইজ, লো-রাইজ, স্লিম লেগ, অ্যাথলেটিক থাই ইত্যাদি কী ধরনের জিন্সের খোঁজ আপনি করছেন তারই নির্দেশ করে এই নম্বরগুলো। আরেকটু স্পষ্ট করে বলা যাক- লেভাইসের প্যান্টের পেছনে যে বাদামী রঙের স্টিকার লাগানো থাকে তাতে পর পর তিনটি নম্বর লেখা থাকে। যেমন- ৫০১ ডব্লিউ৩৬ এল৩২। এখানে প্রথম নম্বরটি অবগত করছে প্যান্টের হিপ ডিজাইন সম্পর্কে। এরপর দ্বিতীয় নম্বরটি অর্থাৎ ডব্লিউ৩৬ এর মানে হলো- প্যান্টের কোমড়ের উচ্চতা কত। এই সংখ্যাটি যত বড় বুঝতে হবে কোমড় থেকে প্যান্টের উচ্চতা তত উপরের দিকে উঠতে থাকবে। এরপর এল৩২ নম্বরটি নির্দেশ করছে প্যান্টের পায়ের গোঁড়ালির অংশটি কতটুকু সরু বা প্রশস্ত।


লেভাইসের ফিট নম্বরগুলো কি কি?
যে তিনটি নম্বর সম্পর্কে এতক্ষণ বলা হলো সেগুলোকেই বলা হচ্ছে ফিট নম্বর। লেভাইসের ফিট নম্বরের উদ্দেশ্য- এতে করে একবার কেনার পর ক্রেতা বুঝতে পারে যে পরবর্তীতে এই প্যান্টই তার জন্য যুতসই হবে কিনা। যেমন- লেভাইসের ৫১১ স্লিম ফিট জিন্স কেনার পর তা যদি মাপে ঠিকঠাক থাকে তাহলে পরবর্তীতে এই নম্বর দেখেই কেনা সহজ হবে। বারবার ট্রায়াল দেয়ার প্রয়োজন নেই। আবার ৫, ৭ বা ৩ এর সিরিজের প্যান্টগুলোও কিন্তু আলাদা। যেমন- যেসব জিন্সগুলোর সিরিয়াল ৫ দিয়ে শুরু সেগুলোর সবই একই শেপ করা হিপের, যা কিনা ৭ ও ৩ এর সিরিজের প্যান্টগুলো থেকে একেবারেই আলাদা। ৫ এর সিরিজের বেশিরভাগ প্যান্টই পুরুষের জন্য। অন্যদিকে ৭ ও ৩ এর সিরিজের সব প্যান্ট নারীদের জন্য। তবে একই সিরিজের জিন্সগুলোর মধ্যেও পার্থক্য রয়েছে। যেমন- লেভাইস ৫৬৭ নম্বরের প্যান্টগুলো হচ্ছে ঢিলেঢালা সোজা কাটের জিন্স। অন্যদিকে ৫ এর সিরিজের ৫১০ নম্বরের প্যান্টগুলো স্কিনি ফিট জিন্স।


কোমরের উচ্চতার বিভিন্নতা
লেভাইসের স্টোরগুলোয় পাঁচ ধরনের কোমরের প্যান্ট পাওয়া যায়। যেমন-
আল্ট্রা হাই রাইজ: হিপের চেয়ে অনেকটা উপরে থাকে এই প্যান্টের ওপরের অংশ।
হাই রাইজ: এই প্যান্টগুলোর কোমর থাকে নাভি বরাবর। 
মিড রাইজ: এই প্যান্টগুলোর দৈর্ঘ্য এমন যে পরার পর তা কোমড়ের চেয়ে একটু ওপরে ও নাভির নিচে থাকে। 
আল্ট্রা লো: এই প্যান্টগুলো থাকে একদমই কোমর বরাবর।

পায়ের কাট 
পায়ের কাটের বেলায় প্রশস্ততার দিক থেকে তিন ধরনের মাপ থাকে- উরু, হাঁটু ও গোঁড়ালীর প্রশস্ততা।যদি লেবেলের তিন নম্বর সংখ্যাটি মানে পায়ের কাট যদি হয় শূণ্য। তাহলে বুঝতে হবে, এটি সুপার স্কিনি প্যান্ট যা উরু থেকে শুরু করে পায়ের গোঁড়ালি অব্দি একেবারেই আটসাঁট হয়ে থাকবে। সেক্ষেত্রে পায়ের কাট যদি ১ হয় তাহলে তা সুপার স্কিনি প্যান্টের মতোই হবে তবে একটু লুজ ফিটিংয়ের। পায়ের কাট ২ হলে হাঁটুর দিকে একটু ঢিলেঢালা ও গোঁড়ালিতে প্রশস্ততা থাকবে। অন্যদিকে ৩ এর প্যান্টগুলো স্লিম ও সোজা কাটের সংমিশ্রণ। লেভাইসের জিন্সের প্যান্টের পায়ের কাট ৪ হওয়া মানে তা হবে সোজা কাটের যেখানে হাঁটু ও গোঁড়ালির প্রশস্ততা সমান। সবশেষে বলছি, পায়ের কাট ৫ এর কথা। যদি ৫ হয় তাহলে বুঝতে হবে তা বুটকাটের প্যান্ট।

ট্রাই ফিট ফার্স্ট অবলম্বনে

ছবি: ট্রাই ফিট ফার্স্ট ও হাই কনজাম্পশনডটকম

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন