বুধবার | মার্চ ০৩, ২০২১ | ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭

শেষ পাতা

সাড়ে তিনশ কোটি টাকা আত্মসাৎ

পিকে হালদারসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে দুদকের ৫ মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

অর্থ আত্মসাতের উদ্দেশ্যে পাঁচটি ভুয়া কাগুজে প্রতিষ্ঠান খুলেছিলেন প্রশান্ত কুমার হালদার (পিকে হালদার) এরপর প্রতিষ্ঠানগুলোর নামে ৩৫০ কোটি ৯৯ লাখ টাকার ঋণ অনুমোদন করিয়ে নেন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড থেকে। কাগুজে এসব প্রতিষ্ঠানের নামে নেয়া ঋণের অর্থ আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়ায় রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) পিকে হালদারসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-- গতকাল মামলাগুলো করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুদক সচিব মুহা. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

দুদক সচিব জানান, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বোর্ডের সদস্যরা অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ করে ভুয়া কাগুজে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের নামে ৩৫০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা ঋণ দিয়ে আত্মসাৎ মানি লন্ডারিং করেছেন। এসব মামলায় আনাম কেমিক্যাল লিমিটেডের নামে ৭০ কোটি ৮২ লাখ, সুখাদা প্রোপার্টিজ লিমিটেডের নামে ৬৯ কোটি ৮০ লাখ, মেসার্স বর্ণর নামে ৬৬ কোটি ৯৮ লাখ, রাহমান কেমিক্যালস লিমিটেডের নামে ৫৪ কোটি ৫৫ লাখ মুন এন্টারপ্রাইজের নামে ৮৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাৎ পাচার করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলাগুলোয় আসামি হিসেবে যাদের নাম রয়েছে তাদের মধ্যে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস কোম্পানির সেক্রেটারি রফিকুল ইসলাম খান, সিনিয়র ম্যানেজার রাফসান রিয়াদ চৌধুরী, এভিপি আল মামুন সোহাগ, সাবেক ভারপ্রাপ্ত এমডি সৈয়দ আবেদ হাসান, রাশেদুল হক, পরিচালক মিজানুর রহমান, বাসুদেব ব্যানার্জি, নওশেরুল ইসলাম, আনোয়ারুল কবীর, জহিরুল আলম, মোহাম্মদ আবুল হাসেম, এমএ হাশেম, নুরুজ্জামান, নাসিম আনোয়ার, নুরুল আলম, পাপিয়া ব্যানার্জি, মেসার্স বর্ণর মালিক অনঙ্গ মোহন রায়, সুখাদা প্রোপার্টিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অভিজিত অধিকারী, আনান কেমিক্যালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অমিতাভ অধিকারী, পরিচালক ওমর শরীফ, রতন কুমার বিশ্বাস, পূর্ণিমা রানী হালদার, উজ্জ্বল কুমার নন্দী, প্রীতিশ কুমার হালদার, মুন এন্টারপ্রাইজের মালিক শঙ্খ ব্যাপারি, রাহমান কেমিক্যালের পরিচালক কাজী মমরেজ মাহমুদ, স্বপন কুমার মিস্ত্রি, রাজিব সোম উল্লেখযোগ্য।

আসামিদের মধ্যে পিকে হালদারের সহযোগী পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের চেয়ারম্যান উজ্জ্বল কুমার নন্দী ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের সাবেক এমডি রাশেদুল হককে গত রোববার জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটক করে দুদক। গতকাল তাদের আদালতে হাজির করে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে তা মঞ্জুর করেন আদালত।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন