রবিবার | মার্চ ০৭, ২০২১ | ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

ডিজনির চেয়ারম্যানের বেতন কমেছে ৫৬%

বণিক বার্তা ডেস্ক

গত বছর ওয়াল্ট ডিজনির নির্বাহী চেয়ারম্যান বব আইগারের বেতন ৫৬ শতাংশ কমে কোটি ১০ লাখ ডলারে দাঁড়িয়েছে। বছরব্যাপী চলা নভেল করোনাভাইরাস মহামারীতে বেতন, বোনাস অন্যান্য সুবিধা কর্তনের ফলে আইগারের আয় কমেছে। খবর ব্লুমবার্গ।

গত বছর আইগারের পদে উন্নীত হওয়া সিইও বব চ্যাপেকের ব্যাংক হিসাবে জমা হয়েছে কোটি ৪২ লাখ ডলার, যা প্রায় এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে ডিজনির কোনো শীর্ষ নির্বাহীর সর্বনিম্ন বেতন। ২০০৬ সালে সিইও হিসেবে প্রথম বছরে কোটি ১৯ লাখ ডলার বেতন গ্রহণ করেছিলেন বর্তমান চেয়ারম্যান আইগার।

গত বছর ডিজনির শীর্ষ পর্যায়ের কর্তাব্যক্তিদের বড় অংকের বোনাস স্থগিত রাখা হয়। এছাড়া আয়ের নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ায় অনেক শীর্ষ কর্মকর্তার বেতন কমানো হয়। গত বছর হাজার ৫০০ কোটি ডলার বিক্রি হলেও ডিজনির বার্ষিক লোকসান হয়েছে ২৮০ কোটি ডলার।

গত বছর বিভিন্নভাবে ডিজনির ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আবার নতুন কয়েকটি আয়ের পথও খুলেছে। বিশ্বব্যাপী নিজেদের থিম পার্ক প্রমোদতরীগুলো বন্ধ রেখেছে বিশ্বের বৃহত্তম বিনোদন কোম্পানিটি। হলিউডের অন্যান্য স্টুডিওর মতো তারাও থিয়েটারে সিনেমা মুক্তি দেয়া থেকে বিরত থেকেছে। এছাড়া টেলিভিশনে খেলাধুলার সরাসরি সম্প্রচারের মধ্যে বিজ্ঞাপন থেকে তাদের আয় সংকুচিত হয়েছে। গত বছর প্রায় ৩২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের পাশাপাশি রেডিও ডিজনি ডিজনিল্যান্ডের মতো জনপ্রিয় বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। রকম বেশ কয়েকটি সংকট থাকা সত্ত্বেও গত বছর ডিজনির শেয়ারদর বেড়েছে ২৫ শতাংশ। তাদের ভিডিও স্ট্রিমিং সেবায় রেকর্ডসংখ্যক গ্রাহক সম্পৃক্ত হয়েছেন। সিনেমাহল বন্ধ থাকায় মানুষ ঘরে বসে সিনেমা টিভি শো দেখা বাড়িয়ে দেয়ায় ডিজনির প্লাস প্লাটফর্মের গ্রাহকসংখ্যা তরতর করে বেড়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন