সোমবার | মার্চ ০১, ২০২১ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

শিল্প বাণিজ্য

এসিডি সিসিআইয়ের সম্মেলন

সদস্য দেশগুলোর সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ

নিজস্ব প্রতিবেদক

আন্তঃঅর্থনীতি সংযোগ বৃদ্ধি, বাণিজ্য সম্পর্কোন্নয়ন সংহতীকরণের লক্ষ্যে এশিয়া কোঅপারেশন ডায়ালগের (এসিডি) সদস্য রাষ্ট্রগুলোর ন্যাশনাল চেম্বারের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে গতকাল চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (সিসিআই) প্রথম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত সম্মেলনে এসিডি সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ভ্যালু চেইন ইনিশিয়েটিভ এবং সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। এসিডির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের সাইডলাইন ইভেন্ট হিসেবে এসিডির সিসিআইয়ের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তুরস্কের ইউনিয়ন অব চেম্বার্স অ্যান্ড কমোডিটি এক্সচেঞ্জেসের (টিওবিবি) সভাপতি রিফাত হিসারজিক্লোউলোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে তুরস্কের বাণিজ্যমন্ত্রী রুহসার পিকজান কি-নোট উপস্থাপন করেন। এসিডির সেক্রেটারি জেনারেল . পর্ঞ্চাই দানভিভাথানাসহ ৩৫টি সদস্য রাষ্ট্র থেকে ব্যবসায়ী নেতারা সদস্য দেশগুলোর অর্থনৈতিক পরিস্থিতি  েসম্ভাবনা নিয়ে বক্তব্য রাখেন।

এশিয়া বৈশ্বিক উৎপাদন কেন্দ্রস্থল হয়ে ওঠায় টিওবিবির সভাপতি তার বক্তব্যে ব্যবসায়িক সংযোগ, সহযোগিতা, মতবিনিময় সংহতির ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তুরস্কের বাণিজ্যমন্ত্রী তার বক্তব্যে কভিড মোকাবেলায় পারস্পরিক সহযোগিতার ওপর জোর দেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে তিনি এসিডি সদস্যদের মধ্যে সহযোগিতার গুরুত্ব তুলে ধরেন।

সম্মেলনে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম স্ট্র্যাটেজিক এসিডি ভ্যালু চেইন ইনিশিয়েটিভের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বলেন, এসিডি সদস্য দেশগুলোর শিল্পের জন্য কাঁচামাল, নলেজ ট্রান্সফার এবং দক্ষতা ব্যবহারের মাধ্যমে কম্পারেটিভ অ্যাডভান্টেজের সর্বোচ্চ ব্যবহার করে বাংলাদেশের উৎপাদিত পণ্য এসিডি মার্কেট অন্যান্য দেশে রফতানি করে এসিডি ভ্যালু চেইনের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার উদ্যোগ নেয়া যেতে পারে।

তিনি দক্ষতা উন্নয়ন, -কমার্স, উৎপাদন, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, কৃষি যান্ত্রিকীকরণ, সরঞ্জাম, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, বীজ উন্নয়ন, কৃষিপ্রযুক্তি, এনার্জি, পানি, এমএসএমই, উদ্ভাবন, স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম, খনিজ, রাসায়নিক, অটোমোবাইল, মোটরবাইক শিল্প উপাদান, ফিশিং, সেবা খাতের শিপিং ট্যুরিজমে সহযোগিতা, এসিডি ভ্যালু চেইনের উদ্যোগ ইত্যাদি ক্ষেত্রে যৌথ বিনিয়োগ এবং গবেষণা উন্নয়নের ওপর জোর দেন।

কভিড-১৯ মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের বিষয়টি উল্লেখ করে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, কভিড মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপের পরিপূরক হিসেবে এফবিসিসিআই সাপ্লাই চেইন সচল রাখা এমএসএমই থেকে বৃহৎ সব খাতের জন্য ফিসক্যাল এবং নন-ফিসক্যাল নীতিসহায়তা, জাতীয় বাজেটে ট্যারিফ ট্যাক্স সুবিধা নিশ্চিতকরণে সরকার অন্যান্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নিয়মিত পলিসি অ্যাডভোকেসি করছে।

সম্মেলনে তুরস্কের ইনভেস্টমেন্ট বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেত ইহসান এরদেম, ইকোনমিক পলিসি রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (টেপাভ) ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক . গুভেন সাক বক্তব্য রাখেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন