সোমবার | মার্চ ০১, ২০২১ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭

দেশের খবর

সিরাজগঞ্জে নবনির্বাচিত কাউন্সিলর হত্যা

আসামিদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ, তদন্ত কমিটি গঠন

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, সিরাজগঞ্জ

শনিবার অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জ পৌরসভার নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর তরিকুল ইসলাম খান (৪৫) প্রতিপক্ষের ছুরির আঘাতে নিহত হয়েছেন। তিনি শহরের নতুন ভাঙাবাড়ী মহল্লার সাবেক কাউন্সিলর মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

হামলা এবং হত্যাকাণ্ডের জন্য পরাজিত প্রার্থী শাহাদত হোসেন বুদ্দিন তার সমর্থকদের দায়ী করা হচ্ছে।

এদিকে অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার ফাঁসির দাবিতে সিরাজগঞ্জ শহরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল করেন মরহুম তরিকুল ইসলাম খানের সমর্থকরা। বিক্ষোভ শহরের ভাঙাবাড়ী গ্রাম থেকে শুরু করে বাহিরগোলা রোড, মুজিবসড়ক, বাজার স্টেশন চত্বর, এসএস রোডসহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সময় বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড স্লোগানের মাধ্যমে বুদ্দিনসহ আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার এবং বিচার দাবি জানানো হয়। সময় কয়েকশ বিভিন্ন বয়সী মানুষ মিছিলে অংশ নেন।

এদিকে গতকাল সকালে আওয়ামী লীগ নেতা শাহাদত হোসেন বুদ্দিনের বাড়িসহ গ্রামবাসীর ওপর হামলা চালিয়ে শতাধিক বাড়িঘর ভাংচুর, লুটপাট করা হয় এবং বাড়িঘর, দোকানপাটে অগ্নিসংযোগ করা হয়। খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এর আগে কাউন্সিলর তরিকুল ইসলামের নিহত হওয়ার খবর শুনে বিক্ষুব্ধ জনতা সিরাজগঞ্জ শহরের বাহিরগোলা রোডে অবস্থিত বুদ্দিন সমর্থক আব্দুস সালামের পঞ্চমতলা বাসায় শনিবার রাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে বাড়ির মালিক সালামসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। অগ্নিদগ্ধে একটি প্রাইভেটকার, একটি মোটরসাইকেল পুড়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। অবস্থায় শনিবার রাত থেকেই ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

নিহত কাউন্সিলরের পরিবারের পক্ষ থেকে বুদ্দিনসহ ২০-২৫ জনকে আসামি করে রোববার সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ সদর থানায় মামলা করার কথা ছিল।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নং ওয়ার্ড নির্বাচনী এলাকা নতুন ভাঙাবাড়ী, শাহেদনগর বেপারী পাড়া, শহীদগঞ্জ, রতনগঞ্জ বাহিরগোলা রোডে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিহত কাউন্সিলরের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ১৭ জানুয়ারি রোববার বাদ আছর তরিকুল ইসলাম খানের জন্মস্থান নতুন ভাঙাবাড়ী গ্রামে জানাজা শেষে রহমতগঞ্জ কবরস্থানে দাফন করার কথা।

১৬ জানুয়ারি পৌরসভা নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার নং ওয়ার্ডে তরিকুল ইসলাম খান ডালিম প্রতীক নিয়ে কাউন্সিলর পদে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উটপাখি প্রতীকে অংশগ্রহণকারী শাহাদত হোসেন বুদ্দিনের চেয়ে ৮৫ ভোট বেশি পেয়ে জয়লাভ করেন। এরপর বিজয় মিছিল বের করা হলে তাতে হামলা করে হত্যা করা হয় তরিকুলকে। এজন্য শাহাদত হোসেন বুদ্দিন তার সমর্থকদের দায়ী করা হচ্ছে।

গতকাল দুপুরে নিহত কাউন্সিলর মো. তরিকুল ইসলাম খানের নতুন ভাঙাবাড়ী গ্রামে নিহতের পরিবার ঘটনাস্থল শহিদগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করে রাজশাহী রেঞ্চের অতিরিক্ত ডিআইজি টিএম মোজাহিদুল ইসলাম বলেন, কাউন্সিলর খুনের ঘটনায় তদন্ত শুরু করা হয়েছে। প্রকৃত দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনা হবে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক হত্যাকারীদের গ্রেফতার করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিষয়ে পুলিশ সুপার হাসিবুল আলমকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সময় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন ফারুকী, নবনির্বাচিত মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তাসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন