সোমবার | মার্চ ০১, ২০২১ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭

আন্তর্জাতিক খবর

প্রেসিডেন্ট পদ মেয়েদের জন্য নয়: দুতার্তে

বণিক বার্তা অনলাইন

প্রেসিডেন্ট পদের জন্য মেয়েরা উপযুক্ত নয় বলে মন্তব্য করেছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে।  গতকাল বৃহস্পতিবার একটি অনুষ্ঠানে তিনি এমন মন্তব্য করেন।  তার মতে, নারীদের আবেগীয় ব্যাপারগুলো পুরুষদের থেকে আলাদা। তারা এ ধরনের পদের জন্য উপযুক্ত নয়। 

বেশ কিছু দিন ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, ফিলিপাইনের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন দুতার্তের মেয়ে সারা দুতার্তে কারপিও।  তিনি বর্তমানে দাভাও শহরের মেয়র। তার বাবাও এক সময় এই শহরের মেয়র ছিলেন।  তিনি বাবার মতো অত্যন্ত জনপ্রিয়।  গতকাল মেয়ের নামে ছড়িয়ে পড়া এই গুঞ্জন সরাসরি প্রত্যাখ্যান করলেন দুতার্তে।

একটি হাইওয়ে প্রজেক্ট উদ্বোধনকালে প্রেসিডেন্ট দুতার্তে বলেন, আমার মেয়ে এই পদে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে নেই।  আমি ইন্দেকে বলেছি সে যেন এদিকে না আসে। কারণ আমি দেখতে পাচ্ছি, আমি যেসবের ভেতর দিয়ে যাচ্ছি তাকেও সেই (কঠিন) পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হবে।  দুতার্তের মেয়ে সারার ডাকনাম ইন্দে। 

দুতার্তে আরো বলেন, এটি (প্রেসিডেন্ট পদ) নারীদের জন্য নয়।  আপনারা জানেন, একজন নারী এবং একজন পুরুষের আবেগীয় সংগঠন সম্পূর্ণ আলাদা।  আপনি এখানে এসে বোকা বনে যাবেন। ...এটা একটা দুঃখের কথা।

অবশ্য ফিলিপাইন এরই মধ্যে দুই জন নারী প্রেসিডেন্ট পেয়েছে। একজন গ্লোরিয়া ম্যাকাপাগাল অ্যারোইয়ো, অন্যজন কোরাজন অ্যাকুইনো।

আপাতদৃষ্টিতে মেয়ের প্রতি অপত্য স্নেহ থেকে দুতার্তে এমন কথা বললেও ৭৫ বছর বয়সী এই রাজনীতিকের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে প্রায়ই আপত্তি উঠেছে। তিনি প্রায়শই আপত্তিকর, যৌনতাবাদী এবং নারীবিদ্বেষী মন্তব্য করেন।  অবশ্য তার কার্যালয় থেকে সেগুলোকে ‘নিরীহ রসিকতা’ বলে উল্লেখ করা হয়ে থাকে।  সবচেয়ে বড় কথা, দুতার্তে ফিলিপাইনে নারী ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়।

দাভাও সিটি মেয়র সারা দুতার্তে (৪২) সাম্প্রতিক একটি মতামত জরিপে জনপ্রিয়তায় শীর্ষ হয়েছেন। ফলে ২০২২ সালের নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে তাকে ভাবছেন অনেকেই।  প্রার্থী হিসেবে ভাইস প্রেসিডেন্ট লেনি রব্রেদো এবং সিনেটর গ্রেস পোও নামে আরো দুই নারীর নামও শোনা যাচ্ছে। 

সারা অবশ্য বার্তা সংস্থাকে রয়টার্সকে জানিয়েছেন, তিনি বাবার উত্তরসূরি হতে চান না।  তিনি বলেন, যদি পুরো দেশ আমার কথা বিশ্বাস করতে না চায়, তাহলে এ বিষয়ে আমার কিছু করার নেই।  সবাই প্রেসিডেন্ট হতে চায় না। আমি তাদের মধ্যে একজন।

তার প্রতি আস্থা ও আত্মবিশ্বাসের জন্য সাধারণ নাগরিকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন সারা।

সূত্র: সিএনএন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন