মঙ্গলবার | জানুয়ারি ২৬, ২০২১ | ১৩ মাঘ ১৪২৭

খবর

দুই মেয়রের বাগবিতণ্ডা দলকে আরো সুসংগঠিত করবে: এলজিআরডি মন্ত্রী

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, মেহেরপুর

সম্প্রতি রাজধানীর ফুলবাড়িয়া মার্কেটে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ফজলে নূর তাপস ও সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্য হয়েছে। একে অপরের প্রতি তাদের ‘দোষারোপ’ গণমাধ্যমেও প্রকাশ হয়েছে। তবে এই বাগবিতণ্ড দলকে আরো সুসংগঠিত করবে বলে মনে করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, ‘ঢাকার সাবেক ও বর্তমান মেয়র দুজনই একই দলের আদর্শের মানুষ। তবে তাদের মধ্যে চিন্তা চেতনা ও কাজের ভিন্নতা থাকতে পারে। এর মধ্যে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়েছে তা দলকে আরও সু-সংগঠিত করবে।’ এর ফলে দলের সাধারণ কর্মীদের মাঝে কোন নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না বলেও মনে করেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে মেহেরপুরের মুজিবনগরে ঐতিহাসিক স্বাধীনতা সড়ক পরিদর্শনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

পরিদর্শনকালে এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, পচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরেই তারা স্বাধীনতার অনেক স্মৃতি বিজড়িত স্থানকেই তারা সমর্থন করেন নাই। তেমনিভাবে এটাও অবহেলিত ছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যেমনিভাবে সম্মান করা হচ্ছে তেমনিভাবে যুদ্ধকালীন স্মৃতিবিজড়িত স্থানগুলোকেও সংরক্ষণ করা হচ্ছে। ১৭ এপ্রিলে কলকাতা-মুজিবনগর সড়কটির নাম দেওয়া হয়েছে স্বাধীনতা সড়ক।

একই অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ও মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন বলেন, প্রধামন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে মুজিবনগরে ১ হাজার কোটি টাকার কাজ হবে তার নকশা প্রায় চূড়ান্ত। খুব দ্রুত এটি একনেকে তোলা হবে। আশা করা যায় আগামী অর্থ বছরে কাজ শুরু হবে। এটি বাস্তবায়ন হলে মুজিবনগর থেকে মুক্তিযুদ্ধের পুরো ইতিহাস দেশ বিদেশের দর্শনার্থীদের সামনে তুলে ধরা যাবে। 

এসময় মেহেরপুর-২ গাংনী আসনের সংসদ সদস্য সাহিদুজামান খোকন, জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম, পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেকসহ আওয়ামী লীগ ও প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা বৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন