মঙ্গলবার | জানুয়ারি ২৬, ২০২১ | ১৩ মাঘ ১৪২৭

দেশের খবর

চসিক নির্বাচন

গোলাগুলিতে নিহতের ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলিতে আজগর আলী বাবুল নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ঘটনায় বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আবদুল কাদেরসহ ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  গতকাল ভোরে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে ঘটনার পরপরই মঙ্গলবার রাতেই নিহত বাবুলের ছেলে সেজান মাহমুদ সেতু ডবলমুরিং থানায় মামলা করেন। মামলায় ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া মামলায় আরো ৩০-৪০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

আসামিরা হলেন আবদুল কাদের, ওবাইদুল করিম মিন্টু, হেলাল উদ্দিন, রিপন, রহিম, আসাদ রহমান, আলাউদ্দিন আলো, আবদুন নবী, আলমগীর, দেলোয়ার রশিদ, সালাউদ্দিন সরকার, দিদার উল্লাহ, ইমারন হোসেন ডলার।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (পশ্চিম) আবু বকর ছিদ্দিক জানান, নগরীর ২৮ নং পাঠানটুলিতে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। এর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার সঙ্গে যাদের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পুরো ঘটনাটি পুলিশ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে। এর সঙ্গে আর যারা সম্পৃক্ত তাদেরও দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে চসিকের পাঠানটুলি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাহাদুরের সমর্থকদের সঙ্গে একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক কাউন্সিলর আবদুল কাদেরের অনুসারীদের সঙ্গে সংষর্ঘের ঘটনা ঘটে। সময় গোলাগুলিতে নজরুল ইসলাম বাহাদুরের অনুসারী আজগর আলী বাবুল গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন