বুধবার | জানুয়ারি ২৭, ২০২১ | ১৩ মাঘ ১৪২৭

খেলা

পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে শীর্ষ উঠল নিউজিল্যান্ড

ক্রীড়া ডেস্ক

কেন উইলিয়ামসনের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ের পর কেইল জ্যামিসনের দুরন্ত বোলিং, ক্রাইস্টচার্চে এই দুইজনের কাছেই যেন অসহায় আত্মসমর্পণ সফরকারী পাকিস্তানের। লড়াইবিহীন এক ম্যাচে মোহাম্মদ রিজওয়ানের দলকে হার মানতে হলো ইনিংস ও ১৭৬ রানে ব্যবধানে। অন্যদিকে এ জয়ে টেস্ট র্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠে এলো কিউইরা। সে সঙ্গে আগামী জুনে লর্ডসে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলার দারুণ সুযোগও তৈরি হলো তাদের সামনে। 

ঘরের মাঠে ততৃীয় দিন শেষেই অবশ্য বড় জয়ের ভিত তৈরি করে রেখেছিল নিউজিল্যান্ড। তবে চতুর্থ দিন সকালে স্বাগতিকদের জন্য কাজটা আরো সহজ করে দেন তরুণ তুর্কি জ্যামিসন। ১ উইকেট হারিয়ে ৮ রান করা পাকিস্তানকে ম্যাচে টিকে থাকতে হলে এদিন অবিশ্বাস্য কিছুই করে দেখাতে হতো। কিন্তু লড়াইয়ের ছিঁটেফোটাও দেখা গেল না পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের মাঝে। ৩ রান করা মোহাম্মদ আব্বাসকে ফিরিয়ে শুরুটা অবশ্য করেছিলেন অভিজ্ঞ ট্রেন্ট বোল্ট। কিন্তু এরপরই দৃশ্যপটে আবির্ভাব জ্যামিসনের। শুরু করেন ২৬ রান করা আবিদ আলীকে ফিরিয়ে দিয়ে। তখন পাকিস্তানের দলীয় রান ৪৬। ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেছিলেন আজহার আলী ও হারিস সোহেল। কিন্তু ৭৯ রানের বেশি নিতে পারেননি তারাও। হারিস সোহেলকে (১৫) নিজের তৃতীয় শিকারে পরিণত করেন তিনি। এরপর ৩৭ রান করা আজহারের প্রতিরোধও ভেঙে দেন জ্যামিসন। ৯৮ রানে যেতে নেই অধিনায়ক রিজওয়ানও (১০)। তাকে ফিরিয়ে নিজের ৫ উইকেটের কোটা পূরণ জ্যামিসন। পরে ২৮ রান করা ফাহিম আশরাফকে ফিরিয়ে তুলে নেন ৬ষ্ঠ উইকেটটিও। অন্যদিকে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে জাফর গোহারকে ফিরিয়ে নিজের তৃতীয় উইকেট শিকারের পাশাপাশি ২-০ ব্যবধানের জয়ও নিশ্চিত করেন বোল্ট। এর আগে প্রথম টেস্টেও নিউজিল্যান্ড জিতেছিল ১০১ রানে। ম্যাচ সেরা হয়েছে জ্যামিসন এবং সিরিজ সেরা অধিনায়ক উইলিয়ামসন। 

ক্রিকইনফো

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন