বৃহস্পতিবার | ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

খবর

ইএসসি সংলাপ ষষ্ঠ পর্ব

‘বিজয়ের ৫০ বছর: সামাজিক অর্জন ও বঞ্চনার গল্প’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকোনমিকস স্টাডি সেন্টার আয়োজিত ইএসসি সংলাপের ষষ্ঠ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় ইএসসির ফেসবুক পেইজ থেকে লাইভের মাধ্যমে সংলাপ সম্প্রচারিত হয়। সংলাপের এ পর্বের বিষয় ছিল ‘বিজয়ের ৫০ বছর: সামাজিক অর্জন ও বঞ্চনার গল্প’। সংলাপের এ পর্বের সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ।

সংলাপে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (BIDS) গবেষণা পরিচালক ড. বিনায়ক সেন, অ্যাক্সেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের সহপ্রতিষ্ঠাতা মহুয়া পাল এবং ইন্ডিজেনাস পিপলস ডেভলপমেন্ট সার্ভিসেস (IPDS) এর সঞ্জীব দং।

আলোচনার শুরুতেই ইএসসির পক্ষ থেক আলোচনার সামগ্রিক বিষয়বস্তুর উপর এক তথ্যচিত্র উপস্থাপন করা হয়, যাতে স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশের অর্জন, দারিদ্র ও বৈষম্য বিষয়ে তুলে ধরা হয়। আলোচনা করা হয় ড. রেহমান সোবহানের দারিদ্রের সংজ্ঞা নিয়ে।

ড. বিনায়ক সেন তার বক্তব্যের শুরুতেই বলেন- বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারা বুঝতে হলে সকলকে এদেশের সামাজিক প্রেক্ষাপট ও ইতিহাসকে মাথায় রাখতে হবে। তার মতে, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সাফল্যের পেছনে এই অঞ্চলের নারী ক্ষমতায়ন ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রভাব রয়েছে। তিনি আরো উল্লেখ করেন যে বাংলাদেশের সামাজিক আন্দোলন ব্যাতিত উন্নত সমাজ গঠন সম্ভব নয়। বাংলাদেশের দারিদ্র্য পরিমাপ করতে প্রচলিত দারিদ্র সীমারেখা (poverty line) বা অন্যান্য নির্দেশক পর্যাপ্ত কি না এই প্রশ্ন রেখেছেন। এক্ষেত্রে তিনি জনগোষ্ঠীর ক্যালরি গ্রহণের আর্থিক সক্ষমতাকে প্রাধান্য দিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশের আয় বৈষম্য, মানবসম্পদ ও সার্ভিস সেক্টরের বাঁধার কথা উল্লেখ করেন। 

পরবর্তীতে মহুয়া পাল দেশের প্রতিবন্ধীদের অর্জন ও বর্তমান অবস্থান তুলে ধরেন। আর বক্তা সঞ্জীব দং দেশের আদিবাসী সমাজের বাস্তবতা তুলে ধরেন। দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী কীভাবে দারিদ্রের চক্রে পিষ্ট, তাদের মাথাপিছু আয়ের বৈষম্য নিয়ে আলোচনা করেন তিনি।

সবশেষে, সভাপতি হিসেবে অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ দেশে বহুমুখী গেবষণামলূক তথ্য ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন এবং দেশর আয় বৈষ্যৈ দূর করার জন মানবিক উন্নয়ন পিলিস গ্রহণ করার আহ্বান জানান। 

সংলাপের পরবর্তী ও শেষ পর্যায়ে দর্শকেদের কাছ থেকে আসা প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা পর্ব আয়োজন করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন