মঙ্গলবার | জানুয়ারি ২৬, ২০২১ | ১৩ মাঘ ১৪২৭

দেশের খবর

বিনা নোটিসে বৌদ্ধবিহারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, নওগাঁ

নওগাঁর বদলগাছীতে নোটিস ছাড়াই অধ্যাপক জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার অভিযোগ উঠেছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বিরুদ্ধে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন প্রশিক্ষণার্থী, প্রশিক্ষকসহ বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্স সংশ্লিষ্টরা। যদিও পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ বলছে, ১৫ মাসের বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের কারণেই সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

জানা যায়, জ্ঞানসারথী অধ্যাপক জ্ঞানরত্ন মহাস্থবীর ২০১২ সালে নিজ নামে উপজেলার আধাইপুর ইউনিয়নের মাধবপাড়া গ্রামে একটি বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্স নির্মাণ করেন। এলাকার বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা এখানে ধর্মীয় জ্ঞানচর্চা করেন। ২০১৮ সাল থেকে বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সে পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত সমতল অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প হিসেবে সেলাই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ২০ জন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী নারীকে চার মাস করে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। প্রতি বছর তিন ভাগে মোট ৬০ জন নারীকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয় বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সে। ২০১৮ সাল থেকে চালু হওয়া প্রকল্প এখনো চলমান রয়েছে।

১৯ নভেম্বর কোনো নোটিস ছাড়াই বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। প্রতিদিন ২০ জন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী নারী এখানে প্রশিক্ষণ নিতে আসেন। প্রশিক্ষণ চলে সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত। বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় আলোকস্বল্পতা এবং সাবমার্সিবল পাম্প বন্ধ থাকায় পানি সরবরাহ বন্ধ হয়ে পড়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন প্রশিক্ষণার্থী প্রশিক্ষক।

প্রশিক্ষণার্থী অনিতা, নমিতা লক্ষ্মী বলেন, কয়েক দিন বিদ্যুৎ না থাকায় খাওয়ার পানি শৌচাগার ব্যবহার করতে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। বাড়ি থেকে খাওয়ার পানি এনে তৃষ্ণা মেটাতে হচ্ছে।

কমপ্লেক্সের তদারককারী রবি তির্কী বলেন, সাতদিন ধরে কমপ্লেক্সে বিদ্যুৎ নেই। ফলে প্রশিক্ষণ নিতে আসা নারীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। আমি বিষয়টি ইউএনও স্যার এবং প্রতিষ্ঠাতা স্যারকে জানিয়েছি।

প্রতিষ্ঠাতা জ্ঞানসারথী অধ্যাপক জ্ঞানরত্ন মহাস্থবীর বলেন, কমপ্লেক্সের বিদ্যুৎ বিল ইউএনও অফিস থেকে দেয়া হয়। ১৫ মাস ধরে যে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে সে বিষয়ে কোনো নোটিস করা হয়নি। আমি বদলগাছীতে থাকি না। আগামী মাসে গিয়ে ইউএনও এবং ডিসির সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহা. আবু তাহির বলেন, বিদ্যুৎ বিলের জন্য আবেদন করা হয়েছে। দ্রুত বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সে বিদ্যুৎ সংযোগের ব্যবস্থা করা হবে।

বদলগাছী পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার রফিকুল ইসলাম বলেন, দাতব্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে অধ্যাপক জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া ছিল। সেখানে কোনো প্রশিক্ষণ চলমান আছে তা জানা ছিল না। শিগগিরই বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্সে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন