শনিবার | নভেম্বর ২৮, ২০২০ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

পণ্যবাজার

ইইউর বাইরে সাড়ে ৬৮ লাখ টন গম বেচবে ফ্রান্স

বণিক বার্তা ডেস্ক

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্স শীর্ষ গম রফতানিকারক। ২০২০-২১ মৌসুমে দেশটি থেকে ইইউর বাইরের বাজারে ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টন গম (সফট হুইট) রফতানির সম্ভাবনা রয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে দেশটির কৃষি মন্ত্রণালয়ের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ফ্রান্সএগ্রিমের। এর মধ্য দিয়ে টানা দ্বিতীয় মাসের মতো কৃষিপণ্যটির রফতানি প্রাক্কলন বাড়ানো হয়েছে। খবর রয়টার্স এগ্রিমানি।

গত অক্টোবরে প্রকাশিত অন্য এক প্রতিবেদনে ২০২০-২১ মৌসুমে ইইউর বাইরের দেশগুলোয় সব মিলিয়ে ৬৭ লাখ টন গম রফতানির পূর্বাভাস দিয়েছিল ফ্রান্সএগ্রিমের। প্রতিষ্ঠানটির সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ মৌসুমে ইইউর বাইরের দেশগুলোয় ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টন গম রফতানি হতে পারে। সে হিসাবে ইইউর বাইরের দেশগুলোয় কৃষিপণ্যটির রফতানি প্রাক্কলন লাখ ৫০ হাজার টন বাড়ানো হয়েছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৯-২০ মৌসুমে ফ্রান্স থেকে ইইউর বাইরের দেশগুলোয় রেকর্ড কোটি ৩৪ লাখ ৬০ হাজার টন গম রফতানি হয়েছে। সে তুলনায় ২০২০-২১ মৌসুমে ইইউর বাইরের বাজারে দেশটি থেকে কৃষিপণ্যটির রফতানি ৪৯ শতাংশ কমে আসছে।

২০২০-২১ মৌসুমের জুলাই থেকে এখন পর্যন্ত ফ্রান্স থেকে চীনে ১০ লাখ টন গম রফতানি হয়েছে। মৌসুমের বাকি সময়ে ফ্রান্স থেকে চীনে আরো ১০ লাখ টন গম রফতানির সম্ভাবনা দেখছে ফ্রান্সএগ্রিমের।

বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির শস্য শাখার প্রধান ম্যারিওন দোভাল বলেন, ফ্রান্স থেকে রফতানি হওয়া গমের অন্যতম প্রধান ক্রেতা চীন। এবার মৌসুমের শুরু থেকেই দেশটিতে কৃষিপণ্যটির রফতানি চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। মৌসুমজুড়ে শুধু চীনের বাজারেই ২০ লাখ টনের মতো গম রফতানি করতে পারে ফ্রান্স।

এদিকে ফ্রান্সসহ পুরো ইইউ থেকে চলতি বছর সব মিলিয়ে কোটি ৮০ লাখ টন গম রফতানি হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) ফরেন এগ্রিকালচারাল সার্ভিস।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন