বুধবার | নভেম্বর ২৫, ২০২০ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

খবর

দুর্নীতিবিরোধী ছায়া সংসদে দুদক কমিশনার

দুর্নীতিতে দুদকের কেউ জড়িত থাকলেও ছাড় দেয়া হচ্ছে না

নিজস্ব প্রতিবেদক

দুদকের প্রতিষ্ঠানিক সক্ষমতা অনেক বেড়েছে। দুদক এখন নখদন্তহীন বাঘ নয়, বরং বাঘের হুঙ্কার এখন অনেকের জন্য ভীতিকর। দুর্নীতির সঙ্গে যদি দুদকের কোনো পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী যুক্ত হন, তবে তার ব্যাপারেও ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং হবে। সে সরকারি কর্মকর্তা, নাকি রাজনীতিবিদ না ব্যবসায়ী, সেটি আমাদের কাছে বিবেচ্য বিষয় নয়, আমাদের বক্তব্য হলো কে দুর্নীতিবাজ। দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় দুদকের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

গতকাল তেজগাঁওয়ে জাতীয় চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (এফডিসি) ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট শিরোনামে দুর্নীতিবিরোধী ছায়া সংসদে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুদক কমিশনার . মো. মোজাম্মেল হক খান এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।

দুদক কমিশনার বলেন, কানাডার বেগমপাড়ায় রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী সরকারি কর্মকর্তাদের কার কী বাড়ি আছে, এগুলো এখনো অনেকটা মিথ। এটির সঠিক পরিসংখ্যান কারো কাছেই নেই। তবে আমাদের কাছে এমন অভিযোগ আছে। আমরা ধরনের অভিযোগ নিয়ে গুরুত্বসহকারে কাজ করছি। পিকে হালদার ছাড়াও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি আছেন, যারা দুর্নীতিতে জড়ানোর পর মিডিয়ার কল্যাণে তারা বিখ্যাত হয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আমাদের মিউচুয়াল আন্ডারস্ট্যান্ডিং রয়েছে, তার মাধ্যমে আমরা দুর্নীতিবাজদের সম্পদ দেশে ফিরিয়ে আনাসহ তাদের আইনের মুখোমুখি করছি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন