মঙ্গলবার | নভেম্বর ২৪, ২০২০ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

দেশের খবর

পৃথক হত্যা মামলায় ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও ও খুলনা

ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজছাত্র হত্যা খুলনায় ভ্যানচালক হত্যা মামলায় ছয়জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে গতকাল রায় ঘোষণা করেছেন আদালত।

জানা গেছে, টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের শিক্ষার্থী রেজাউল ইসলামকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় তিন বন্ধুকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে গতকাল রায় ঘোষণা করেন অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজের বিচারক বিএম তারিকুল কবীর। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন সুইট আলম, পলাশ হাসান জামিল।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর থানার আন্ধারমুহা গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম কলেজে লেখাপড়ার পাশাপাশি ওয়ার্ল্ডভিশন-২১ নামে একটি মাল্টিলেভেল কোম্পানিতে চাকরি করতেন। চাকরির সুবাদে দণ্ডপ্রাপ্তদের সঙ্গে রেজাউলের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে।  ২০১৫ সালের মার্চে রেজাউলের মোটরসাইকেল হাতিয়ে নিতে হাসান জামিলের বাসায় আসার কথা বলে একটি বাঁশঝাড়ে নিয়ে যায় আসামিরা। পরে পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর আগুন ধরিয়ে দিয়ে মোটর সাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। ঘটনার পর তদন্ত শেষে বালিয়াডাঙ্গী থানার এসআই আবু তালেব বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

এদিকে খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলায় ভ্যানচালক রাশেদুল ইসলাম গাজী (১৭) হত্যা মামলায় তিনজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল দুপুরে খুলনা জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন মো. রবিউল ইসলাম, বনি আমিন শেখ মো. শহিদুল ইসলাম।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৯ আগস্ট রাশেদুল ইসলাম গাজী বটিয়াঘাটার জয়পুর গ্রামের নিজ বাসা থেকে বের হয়ে যান। এরপর তিনি আর ফেরেননি। পরদিন ২০ আগস্ট সকালে পুলিশ আমির হামজার বাগানের পাশ থেকে তার মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করে। এরপর রাশিদুলের বাবা হালিম গাজি বাদী হয়ে বটিয়াঘাটা থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন