বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২৬, ২০২০ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শেষ পাতা

চীন নিয়ে বাইগানের বক্তব্য বাংলাদেশের জন্য অসম্মান —চীনা দূতাবাস

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীনকে নিয়ে মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন বাইগানের দেয়া বক্তব্য বাংলাদেশের জন্যও অসম্মানজনক বলে মনে করে চীন। গতকাল ঢাকাস্থ চীনা দূতাবাসের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে -সংক্রান্ত একটি পোস্টে মন্তব্য করা হয়েছে।

চীনা দূতাবাসের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে প্রকাশিত ওই পোস্টে বলা হয়, অক্টোবরের ২০ তারিখে ওয়াশিংটন ডিসিতে এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন বাইগান তার ভারত বাংলাদেশ সফর সম্পর্কে সংক্ষেপে তুলে ধরেন। সেখানে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে দুর্ভাগ্যবশত চীন খুবই কম কাজ করেছে। স্টিফেন বাইগানের দাবি অনুপযুক্ত এবং মোটেও তা গঠনমূলক নয়।

চীনা দূতাবাসের পক্ষ থেকে বলা হয়, এটি সবার প্রত্যাশা ছিল যে স্টিফেন বাইগান তার সফরে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ককে গুরুত্ব দেবেন। যদিও এর আগে ১৫ অক্টোবর বাংলাদেশ ছেড়ে যাওয়ার আগে মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী চীনের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ করে গিয়েছেন। যেখানে তিনি চীন-ভারত সীমান্ত সংঘাত, থাইওয়ান প্রণালি, দক্ষিণ চীন সাগর এবং হংকংয়ের জাতীয় সুরক্ষা আইনের উদাহরণ টেনেছেন, যার সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো সম্পর্ক নেই। ধরনের আচরণ শুধু কূটনৈতিক প্রটোকলগুলোর গুরুতর লঙ্ঘনই নয়, বরং বাংলাদেশের আমন্ত্রণে এসে বাংলাদেশকে অসম্মান করার শামিল। কেননা বাংলাদেশ একটি শান্তিকামী দেশ, যার কূটনৈতিক বিশ্বাস সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, শত্রুতা কারো সঙ্গে নয়

প্রসঙ্গত, চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ভারত হয়ে বাংলাদেশ সফর করেন মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন বাইগান। সফরকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক গোলটেবিলে রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। পাশাপাশি আইপিএস নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দিল্লি ঢাকা সফরে ইতিবাচক ফল এসেছে। আইপিএসের মূল লক্ষ্য হচ্ছে শান্তি স্থিতিশীলতা। দুর্ভাগ্যবশত ভারত-প্রশান্ত অঞ্চলে আমরা বেশকিছু সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি, তা অস্বীকার করা যাবে না। নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। এটি সত্য, আর এটি আমাদের অনেকের উদ্বেগের কারণ। হিমালয়ে সীমান্তে যে চ্যালেঞ্জগুলো রয়েছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এছাড়া জাপান, তাইওয়ান, হংকং, তিব্বতে চ্যালেঞ্জগুলো রয়েছে। অস্ট্রেলিয়াকে অর্থনৈতিকভাবে চ্যালেঞ্জে রাখা হয়েছে। অঞ্চলে অনেকগুলো চ্যালেঞ্জ বর্তমানে রয়েছে, যা যুক্তরাষ্ট্রসহ অঞ্চলের অনেক দেশকে উদ্বিগ্ন করছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন