শুক্রবার | নভেম্বর ২৭, ২০২০ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শিল্প বাণিজ্য

সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য ২০০% লভ্যাংশ ঘোষণা ওয়ালটনের

নিজস্ব প্রতিবেদক

ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য ২০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে। আর কোম্পানিটির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে ৭৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ। সর্বশেষ সমাপ্ত ২০১৯-২০ হিসাব বছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে ওয়ালটন। আলোচ্য হিসাব বছরে এর আগের বছরের তুলনায় কোম্পানিটির বিক্রি ২০ শতাংশ এবং কর-পরবর্তী মুনাফা ৪৭ শতাংশ কমেছে।

গতকাল দুপুরে অনুষ্ঠিত সভায় ২০১৯-২০ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন করেছে ওয়ালটনের পর্ষদ। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির বিক্রি হয়েছে হাজার ১০৭ কোটি ৯২ লাখ টাকার পণ্য। যেখানে এর আগের ২০১৮-১৯ হিসাব বছরে বিক্রি হয়েছিল হাজার ১৭৭ কোটি টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির বিক্রি কমেছে হাজার ৬৯ কোটি টাকা। ২০১৯-২০ হিসাব বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৭২৬ কোটি ৪৪ লাখ টাকায়। যেখানে এর আগের হিসাব বছরে মুনাফা হয়েছিল হাজার ৩৭৬ কোটি টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৬৪৯ কোটি টাকা।

২০১৯-২০ হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৪ টাকা ২১ পয়সা। এর আগের হিসাব বছরে ইপিএস ছিল ৪৫ টাকা ৮৭ পয়সা। ৩০ জুন ২০২০ শেষে পুনর্মূল্যায়ন সঞ্চিতিসহ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৬৪ টাকা ৪৮ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশসহ অন্যান্য এজেন্ডায় শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বছরের ২৩ ডিসেম্বর বেলা সাড়ে ১১টায় বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আহ্বান করা হয়েছে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯ নভেম্বর।

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে আসার আগে ওয়ালটনের পরিশোধিত মূলধন ছিল ৩০০ কোটি টাকা এবং মোট শেয়ার সংখ্যা ছিল ৩০ কোটি। বছরের আগস্টে বুক বিল্ডিং পদ্ধতির আইপিওর মাধ্যমে ২৯ লাখ ২৮ হাজার ৩৪৩টি সাধারণ শেয়ার ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ১০০ কোটি টাকার মূলধন উত্তোলন করে কোম্পানিটি। এর মধ্যে ১৩ লাখ ৭৯ হাজার ৩৬৭টি শেয়ার যোগ্য বিনিয়োগকারীদের কাছে তাদের নিজেদের বিডিংকৃত মূল্যে ইস্যু করা হয়। আর সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ১৫ লাখ ৪৮ হাজার ৯৭৬টি শেয়ার কাট অফ প্রাইসের ২০ শতাংশ কমে অর্থাৎ ২৫২ টাকায় ইস্যু করা হয়।

আইপিওর পর কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩০ কোটি ২৯ লাখ ২৮ হাজার ৩৪৩। বর্তমানে কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৯৯ দশমিক শূন্য শতাংশই রয়েছে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে। ইস্যুকৃত সাধারণ শেয়ারের মধ্যে দশমিক ৪৫ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক এবং দশমিক ৫২ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন