বুধবার | আগস্ট ০৪, ২০২১ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

করোনাবিশ্ব

মানব কোষে প্রবেশে ভাইরাসের ব্যবহূত প্রোটিন চিহ্নিত হয়েছে

বণিক বার্তা ডেস্ক

ইউনিভার্সিটি অব ব্রিস্টলের একদল গবেষক সেই প্রোটিনকে চিহ্নিত করেছেন, যা নভেল করোনাভাইরাসকে উচ্চতর সংক্রামক করে তোলে। পাশাপাশি কীভাবে সেটি মানব কোষকে সংক্রমিত করে সেটিও শনাক্ত করেছেন তারা।

২০ অক্টোবর সায়েন্সে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গেছেনিউরোপিলিন-, একটি ট্রান্সমেমব্রেন প্রোটিন কাজ করে সার্স-কোভ- সংক্রমণের হোস্ট ফ্যাক্টর হিসেবে। ভাইরাস মানব কোষের সংক্রমণের জন্য যে প্রোটিন ব্যবহার করে সেটি শনাক্ত করার মাধ্যমে গবেষণাটিকে অ্যান্টিভাইরাল হস্তক্ষেপের একটি  সম্ভাব্য লক্ষ্য হিসেবেও সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।

ভাইরাল প্রোটিনের সাহায্যে ভাইরাস নিজেকে সংযুক্ত করতে পারে এবং মানব কোষে আক্রমণ করতে পারে, ভাইরাল প্রোটিনকে ডাকা হয় স্পাইক প্রোটিন বলে। প্রোটিনগুলোর উপস্থিতি তাদের পৃষ্ঠে করোনাভাইরাসকে স্পাইক আকৃতিতে প্রসারিত হতে দেয়। মানব কোষে আক্রমণ করার পর সার্স-কোভ- একাধিক ভাইরাস প্রতিলিপি তৈরি করে। ভাইরাস মানব কোষের পৃষ্ঠে নিউরোপিলিন-১কে চিহ্নিত করে, যা কিনা ভাইরাসকে সাহায্য করে কোষকে সংক্রমিত করতে।

গবেষকরা কী বলছেন: সর্বশেষ গবেষণাটি সম্পন্ন হয়েছে ব্রিস্টলের ফ্যাকাল্টি অব লাইফ সায়েন্সে। প্রফেসর পিটার কালেনসহ সংশ্লিষ্ট অন্যরা নিজেদের পরীক্ষার ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, সার্স-কোভ--এর ক্রমটি দেখতে গিয়ে সেখানে অ্যামিনো অ্যাসিডের একটি ক্ষুদ্রতর ক্রম আমাদের হতবাক করেছে। এটি নিউরোপিলিন--এর সঙ্গে মিথস্ক্রিয়া করে এমন মানব প্রোটিনে দেখা যাওয়া প্রোটিন ক্রমের নকল করেছে বলে মনে হচ্ছিল। এটি আমাদের একটি সরল হাইপোথিসিসের দিকে চালিত করে: সার্স-কোভ--এর স্পাইক প্রোটিন যা নিউরোপিলিন--এর সঙ্গে যুক্ত, সেটি কি মানব কোষগুলোতে সংক্রমণের ক্ষেত্রে সহায়তা করতে পারে? নিজেদের রিপোর্টে প্রশ্ন তুলেছেন গবেষকরা।

তারা আরো বলেন, আমরা কাঠামোগত বায়োকেমিক্যাল পদ্ধতির পরিসর প্রয়োগ করে এটা প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছি যে সার্স-কোভ--এর স্পাইক প্রোটিন সত্যিকার অর্থে নিউরোপিলিন--এর সঙ্গে আবদ্ধ হয়।

দ্য প্রিন্টের সঙ্গে আলাপে ভাইরোলজিস্ট শাহিদ জামিল বলেন, গবেষণা দৃষ্টি দিয়েছে মানব কোষের কোন প্রোটিনটি ভাইরাসের জন্য কোষকে সংক্রমিত করতে গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, সব ভাইরাস শরীরের সব কোষকে সংক্রমিত করে না। এখানে কিছু নির্দিষ্টতা আছে। সে জন্য বিভিন্ন ভাইরাস বিভিন্ন প্রোটিনের সঙ্গে কোষের পৃষ্ঠে আবদ্ধ হয় এবং একবার সেটি স্থান গ্রহণের পর ভাইরাস কোষে প্রবেশ করে।

দ্য প্রিন্ট থেকে সংক্ষেপে অনূদিত

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন