মঙ্গলবার | নভেম্বর ২৪, ২০২০ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

খবর

কভিড-১৯

দেশে আরো ১৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১০৯৪

বণিক বার্তা অনলাইন

নভেল করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে গত একদিনে আরো ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৫ হাজার ৭৮০-তে। একই সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরো ১ হাজার ৯৪ জন; ঈদের পর এটাই সর্বনিম্ন শনাক্ত। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৫০৭-এ।

আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

এতে দেশের ১১১টি পরীক্ষাগারের তথ্য তুলে ধরে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১০ হাজার ৫৫৬টি নমুনা সংগৃহীত হয়েছে। এসময়ে আগের কিছু নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১০ হাজার ৯৯৮টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হল ২২ লাখ ৪৬ হাজার ৪৮৬টি নমুনা।

একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন আরো ১ হাজার ৪৯৮ জন রোগী। এ নিয়ে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ১৩ হাজার ৫৬৩ জন হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৯৫, যা এখন পর্যন্ত ১৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৮ দশমিক ৮৮ শতাংশ, আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৯ জনের মধ্যে পুরুষ ১৭ জন এবং নারী দুজন। এ পর্যন্ত মৃত ৫ হাজার ৭৮০ জনের মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৪৫২ জন; যা শতাংশের হিসাবে ৭৭ দশমিক ০২ শতাংশ এবং নারী রয়েছেন ১ হাজার ৩২৮ জন; যা শতাংশের হিসাবে ২২ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

মৃতদের বয়স বিভাজনে বলা হয়েছে, গেল ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী রয়েছেন একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের চারজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের তিনজন এবং ষাটোর্ধ্ব বয়সের মারা গেছেন ১০ জন।

গেল ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি মারা গেছেন যথারীতি ঢাকাতেই, ১৩ জন। এছাড়াও চট্টগ্রামে তিনজন, ময়মনসিংহে দুজন এবং খুলনায় একজন মারা গেছেন। এদের সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম আক্রান্ত শনাক্তের পর দ্রুত সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে নভেল করোনাভাইরাস। মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয় বিশ্বের অধিকাংশ এলাকা। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যুর খবর জানানো হয় ১৮ মার্চ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন