বুধবার | অক্টোবর ২১, ২০২০ | ৫ কার্তিক ১৪২৭

খেলা

ডার্বিতে লিভারপুলের হোঁচট

ক্রীড়া ডেস্ক

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএল) মার্সেসাইড ডার্বির উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে শনিবার বিকেলে মুখোমুখি হয়েছিল লিভারপুল ও এভারটন। লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা একই অঞ্চলের এই দু’দলকে নিয়ে আগে থেকেই ছিল বাড়তি উত্তাপ। তবে দুবার এগিয়ে গিয়েও এভারটনের মাঠ গুডিসন পার্ক থেকে জয় নিয়ে ফিরতে পারেনি লিভারপুল। জমে উঠা ম্যাচটি ড্র হয়েছে ২-২ গোলে। 

আগের ম্যাচে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ৭-১ গোলের হার। সেই যন্ত্রণা ভুলতে এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচটিকে পাখির চোখ করেছিল ‘অল রেড’রা। ম্যাচে ইয়ুর্গেন ক্লোপের শিষ্যরা শুরুটাও করেছিল দারুণ।  প্রথম মিনিট থেকেই ছিল প্রেসিংয়ের ঝড়। অবশ্য লিভারপুল প্রথম গোলটি পায় দু দল থিতু হওয়ার আগে। মাত্র তিন মিনিটের মাথায় অ্যান্ডি রবার্টসনের অ্যাসিস্টে লক্ষ্যভেদ করেন সাদিও মানে।

এগিয়ে গিয়েও দাপট ছিল লিভারপুলের। তবে ১১ মিনিটে লিভারপুল ধাক্কা খায় নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার ভার্জিল ভ্যান ডাইক চোটে পড়ে মাঠ ছেড়ে গেলে। যার অভাব ম্যাচের শেষ পর্যন্ত অনুভব করেছে লাল জার্সির দলটি। ভ্যান ডাইককে হারানোর শোক থেকে বেরুনোর আগেই লিভারপুলের জালে বল পাঠিয়ে সমতা ফেরায় এভারটন। যদিও এই গোলের কিছুটা কৃতিত্ব লিভারপুল গোলরক্ষক আদ্রিয়ানকেও দেয়া যেতে পারে। বাঁচানোর সুযোগ থাকলেও তার হাত ফসকেই বল জালে জড়ায়। পিছিয়ে পড়েও অবশ্য হাল ছাড়েনি লিভারপুল। যদিও প্রথমার্ধ শেষ হয় সমতায়। 

বিরতির পরও আক্রমণের ধারা অব্যাহত রেখেছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। আক্রমণ ও পাসিং ফুটবলের সমন্বয়ে প্রতিপক্ষকে বেশ চাপে রাখে তারা। যদিও গোল যেন সোনার হরিণ। অবশেষে ডেডলক ভাঙার দায়িত্ব নেয় ‘ইজিপশিয়ান কিং’ খ্যাত মোহাম্মদ সালাহ। ৭২ মিনিটে তার করা গোলই লিড এনে দেয় অ্যানফিল্ডের দলটিকে। এই গোল দিয়ে লিভারপুলের হয়ে একশ গোলের মাইলফলকও স্পর্শ করেন সালাহ। এগিয়ে গিয়ে ক্লোপের দল সুযোগ পেয়েছিল ব্যবধান বাড়ানোর। কিন্তু লিভারপুলকে গোলবঞ্চিত করেন এভারটন গোলরক্ষক।

অন্যদিকে পাল্টা আক্রমণে সুযোগ পেয়ে ৮১ মিনিটে এভারটনকে  সমতায় ফেরান কালভার্ট-লুইন। তবে শেষ মুহূর্তে গিয়ে জর্দান হেন্ডারসন এগিয়ে দিয়েছিলেন লিভারপুলকে। কিন্তু ভিএআরের কারণে বাতিল হয় সেই গোল। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় বর্তমান শিরোপাধারীদের। 

বিবিসি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন