শুক্রবার | অক্টোবর ৩০, ২০২০ | ১৫ কার্তিক ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

টাটায় আড়াই হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ আলোচনায় ওয়ালমার্ট

বণিক বার্তা ডেস্ক

টাটার নতুন সুপার অ্যাপে বড় অংকের শেয়ার ক্রয়ে হাজার ৫০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে রিটেইল জায়ান্ট ওয়ালমার্ট। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুটি সূত্রের বরাতে তথ্য নিশ্চিত হয়েছে। খবর মিন্ট, রয়টার্স।

ওয়ালমার্টের সঙ্গে টাটার চুক্তিটি সম্পন্ন হলে ভারতের রিটেইল খাতে এটা হবে সবচেয়ে বড় চুক্তি। এর আগে ২০১৮ সালে হাজার ৬০০ কোটি ডলারে ফ্লিপকার্টের ৬৬ শতাংশ শেয়ার কিনেছিল ওয়ালমার্ট।

মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্সের পর এবার টাটা গ্রুপে বড় অংকের বিনিয়োগের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। টাটার ডিজিটাল প্লাটফর্ম সুপার অ্যাপে ওয়ালমার্টের আড়াই হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা চলছে। এই বিষয়ে এখনো কোনো পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি। সূত্রগুলো বলছে, ওয়ালমার্ট টাটার মধ্যে যৌথ উদ্যোগ হিসেবে ওই সুপারঅ্যাপটি চালু হবে। 

উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগেই জানা গিয়েছিল একটা -কমার্স অ্যাপ বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে টাটা গ্রুপ, যার লক্ষ্য হলো দেশের ভেতরে চাঙ্গা এই বাজারে অ্যামাজন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজকে টক্কর দেয়া। অ্যাপটির মাধ্যমে এই শিল্পগোষ্ঠী প্রথমে তাদের বিভিন্ন ধরনের ভোক্তা পরিষেবা একসঙ্গে আনতে চাইছে। আশা করা হচ্ছে, চলতি বছরের ডিসেম্বর অথবা আগামী বছরের জানুয়ারিতে এই অ্যাপ চালু হয়ে যাবে। এর মাধ্যমে টাটাগোষ্ঠীর অধীনে থাকা গহনা শাখা তানিশক, ঘড়ি শাখা টাইটান, খুচরো ব্যবসা শাখা ট্রেন্ড ইত্যাদিকে ডিজিটাল প্লাটফর্মে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসা হবে।

একটি সূত্র বলছে, ভারতের দ্রুত সম্প্রসারমাণ -কমার্স ব্যবসায় একটি শক্তিশালী ব্র্যান্ডের সমর্থন চাইছিল ওয়ালমার্ট। অন্যদিকে ভারতে নিজেদের অবস্থান মজবুত করতে বৈশ্বিক একটি ব্র্যান্ডের সহায়তা কামনা করছিল টাটা।

জিও প্লাটফর্ম বা অ্যামাজনের তুলনায় টাটা গ্রুপের নিজস্ব ব্র্যান্ডের পণ্যের ফ্র্যাঞ্চাইজি অনেক বেশি বিস্তৃত। বিভিন্ন রিটেইল পণ্য বিক্রিতে টাটা ক্লিক, স্টারকুইক, টাটা স্কাই, ক্রোমার মতো নিজস্ব প্লাটফর্ম ব্যবহার করছে টাটা গ্রুপ।

টাটার ভোগ্যপণ্যের মধ্যে রয়েছে চা, কফি, পানি, লবণ, ডাল, মসলা এবং তৈরীকৃত বিভিন্ন খাবার। টাটার বস্ত্র অ্যাকসেসরিজ শাখা ট্রেন্টের আওতায় পরিচালিত হচ্ছে ওয়েস্টসাইড। টাটার বুকস্টোর চেইন পরিচালনায় রয়েছে ল্যান্ডমার্ক।

টাটা গ্রুপের একটি সূত্রের খবর, বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে লগ্নির পরিমাণ এবং কত শেয়ার দেয়া হবেএসব দিক ঠিক হবে। আর তারপর আনুষ্ঠানিকভাবে দুই সংস্থার পক্ষ থেকে বিষয়টি ঘোষণা করা হবে। ওয়ালমার্টও লেনদেন সম্পন্নে গোল্ডম্যান স্যাকস ব্যাংকের সহায়তা নেবে বলে জানা গেছে। প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানকে মেইল পাঠানো হলেও টাটা, ওয়ালমার্ট গোল্ডম্যান স্যাকসের কেউই নিয়ে মুখ খুলছেন না।

দ্বিতীয় সূত্র বলছে, সুপারঅ্যাপের বাজারমূল্য আনুমানিক থেকে হাজার কোটি ডলারে দাঁড়াতে পারে। এটা বিশেষভাবে স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল যে কভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে মুকেশ আম্বানি নেতৃত্বাধীন রিলায়েন্স গ্রুপের বিভিন্ন শাখায় রীতিমতো বড় আকারের বিদেশী বিনিয়োগ আসছে।

গত কয়েক মাসে গুগল, ফেসবুক, সিলভার লেকের মতো নামিদামি প্রতিষ্ঠান থেকে হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ নিশ্চিত করেছে রিলায়েন্স। এবার সামনে এল টাটা-ওয়ালমার্টের চুক্তির বিষয়টি। এটি বাস্তবায়িত হলে টাটায় বিদেশী বিনিয়োগের পরিমাণ রিলায়েন্সের চেয়ে বেশি হবে বলে মনে করছে বিভিন্ন মহল।

ওয়ালমার্টের সম্ভাব্য বিনিয়োগের খবরে টাটা কনসালট্যান্সি সার্ভিসেস, টাটা মোটরস টাটা স্টিলের শেয়ারদর শতাংশের বেশি বেড়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন