শনিবার | অক্টোবর ৩১, ২০২০ | ১৬ কার্তিক ১৪২৭

খবর

বন্যা ও ভাঙনের ক্ষতি কমাতে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে —পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

বণিক বার্তা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, অঞ্চলের বন্যার সমস্যা অতীতেও ছিল, এখনো আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। উজানে যখন বৃষ্টি হয়, তখন পানি অঞ্চল দিয়ে নেমে বঙ্গোপসাগরে যায়। ভাটির দেশ হিসেবে সব সময় এটা আমাদের মোকাবেলা করতে হয়।

নদীভাঙন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বন্যার পানির কারণে নদীভাঙনসহ যে ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে তা কমিয়ে আনতে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া নদী ড্রেজিংয়ের বড় প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে। এসব বাস্তবায়ন করতে পারলে বন্যা নদীভাঙনের ক্ষতি থেকে গ্রামবাসী রক্ষা পাবে।

তিস্তায় চীনের প্রস্তাবিত প্রকল্প নিয়ে তিনি বলেন, ২১টি প্রকল্প নিয়ে ডোনারদের সঙ্গে কথা বলেছি। এর মধ্যে তিস্তা প্রকল্প নিয়ে চীন আগ্রহ দেখিয়েছে। আমরাও সম্মতি জানিয়েছি। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে।

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী গতকাল সদর উপজেলার মোগলবাসা এলাকায় ধরলার ভাঙন পরিদর্শন শেষে নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে কথা বলেন। সময় উপস্থিত ছিলেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক এএম আমিনুল হক, স্থানীয় সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ, আসলাম হোসেন সওদাগর, পানি উন্নয়ন বোর্ড উত্তরাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ, জেলা প্রশাসক মো. রেজাউল করিম, কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন