বৃহস্পতিবার | অক্টোবর ২৯, ২০২০ | ১৪ কার্তিক ১৪২৭

পণ্যবাজার

রফতানি বন্ধেও ভারতে কমেনি পেঁয়াজের দাম

বণিক বার্তা ডেস্ক

প্রতিকূল আবহাওয়ায় সরবরাহ সংকটের জের ধরে অভ্যন্তরীণ বাজারে মূল্যবৃদ্ধির লাগাম টানতে পেঁয়াজ রফতানি সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। এর পরও খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি দেশটির সরকার। রফতানি বন্ধের পর ভারতের বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কিছুটা বেড়েছে। তবে কমেনি দাম। রফতানি বন্ধের পরও দেশটির পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম ২০-৩০ শতাংশ বেড়েছে। আগামী দিনগুলোয় পণ্যটির দাম বর্তমানের তুলনায় আরো বাড়তে পারে বলে মনে করছেন খাতসংশ্লিষ্টরা। খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড ইকোনমিক টাইমস।

এবারের মৌসুমে ভারতের পেঁয়াজ উৎপাদনকারী এলাকাগুলোয় অতিবৃষ্টি দীর্ঘমেয়াদি বন্যার কারণে পণ্যটির উৎপাদন সরবরাহ ব্যাহত হয়েছে। এর প্রভাব পড়েছে পেঁয়াজের বাজারে। বাড়তে বাড়তে সেপ্টেম্বরের শুরুতে ভারতের পাইকারি বাজারে প্রতি কুইন্টাল রফতানিযোগ্য পেঁয়াজের দাম হাজার ৫০০ রুপি ছাড়িয়ে যায়।

ওই সময় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার রফতানিতে লাগাম টেনে অভ্যন্তরীণ বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়। ফলে ১৪ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করে পেঁয়াজ রফতানি সাময়িক বন্ধের ঘোষণা দেয় দিল্লি। এরপর ১০ দিনের বেশি সময় পার হয়েছে। এর মধ্যে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সে উদ্দেশ্য সফল হয়নি। বরং রফতানি বন্ধের পর গত ১০ দিনে ভারতের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম ২০-৩০ শতাংশ বেড়েছে।

নাসিক জেলার লাসালগাঁওয়ে এশিয়ার সবচেয়ে বড় পেঁয়াজের পাইকারি বেচাকেনার কেন্দ্র অবস্থিত। ১৪ সেপ্টেম্বর এখানকার পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৭ রুপিতে (ভারতীয় মুদ্রা) বিক্রি হয়েছিল। ২২ সেপ্টেম্বর নাগাদ প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম বেড়ে ৩৬ রুপিতে উন্নীত হয়েছে। অন্যদিকে উত্তর ভারতে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম রয়েছে ৩৫ রুপি।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বলছেন, প্রতি বছরই আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে পেঁয়াজের বাজারে সংকট তৈরি হয়। দাম বাড়ে। এবারো এর ব্যতিক্রম হয়নি। সংকট নিরসন মূল্যবৃদ্ধির লাগাম টানতে গত বছরের মতো এবারো পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করা হয়েছে। তবে বাজারে এর খুব একটা সুফল মেলেনি। রফতানি সাময়িক বন্ধের পর পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কিছুটা বেড়েছে ঠিকই, তবে দাম কমেনি। উল্টো গত ১০ দিনে পণ্যটির দাম বেড়েছে ২০-৩০ শতাংশ।

অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতের বাজারে নতুন মৌসুমের পেঁয়াজ উঠবে। ওই সময় সরবরাহ অনেকটাই বাড়বে। ফলে কমে আসতে পারে পেঁয়াজের দামএমনটাই মনে করছেন ভারতীয় পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা। তার আগে পর্যন্ত ভারতের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কমার সম্ভাবনা ক্ষীণ। ফলে আরো অন্তত এক মাস বাড়তি দামে পেঁয়াজ কিনতে হতে পারে ভারতীয়দের।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন