মঙ্গলবার | অক্টোবর ২০, ২০২০ | ৫ কার্তিক ১৪২৭

আন্তর্জাতিক খবর

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে কোনো নারীকেই চান ট্রাম্প

বণিক বার্তা ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, সুপ্রিম কোর্টের প্রয়াত বিচারপতি রুথ বেডার গিন্সবার্গের স্থলাভিষিক্ত করতে কোনো নারীকে বেছে নেবেন তিনি। আগামী সপ্তাহেই মনোনয়ন চূড়ান্ত করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনের আওতায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলো নিয়ে রুল জারির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আদালতের মতাদর্শিক ভারসাম্য খুব জরুরি। যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট একজন প্রধান বিচারপতি আট বিচারপতি নিয়ে গঠিত হয়। প্রেসিডেন্ট মনোনীত বিচারপতিদের নিয়োগ দেয় সিনেট। একবার নিয়োগ দেয়ার পর পদত্যাগ, অবসর বা অভিশংসন ছাড়া ওই বিচারপতিরা আমৃত্যু দায়িত্ব পালন করতে পারেন। ট্রাম্প তার শাসনামলে দুই বিচারপতিকে নিয়োগ দিতে পেরেছেন। গিন্সবার্গের মৃত্যুতে তৃতীয় বিচারপতি নিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়েছে তার। নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে ট্রাম্প কাজটি শেষ করতে চান। আর তার ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন চাইছেন নির্বাচনের আগে যেন বিচারপতি নিয়োগ না পান।

এমন অবস্থায় গত শনিবার নর্থ ক্যারোলাইনায় এক সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, আগামী সপ্তাহে আমি একজন বিচারপতি নিয়োগ দিচ্ছি। আমি মনে করি, পদে কোনো নারীকে নিয়োগ দেয়া উচিত। সত্যিকার অর্থে পুরুষের চেয়ে আমি নারীদের বেশি পছন্দ করি।

ট্রাম্প যখন বক্তৃতা দিচ্ছিলেন, তখন সমর্থকদের কেউ কেউ তাকে দ্রুত বিচারপতির শূন্য আসন পূরণ করার আহ্বান জানাচ্ছিলেন। তারা সে সময় আসন পূরণ করো এমন স্লোগান দিচ্ছিল। বলছিলেন, ট্রাম্প যেন এক মেয়াদে তিন বিচারপতি নিয়োগের বিরল সুযোগটি গ্রহণ করেন।

সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি নিয়োগ সবসময়ই উত্তপ্ত রাজনৈতিক বিষয় হিসেবে হাজির হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট কোনো প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করতে পারেন, যা সিনেট অনুমোদন করতে পারে কিংবা প্রত্যাখ্যান করতে পারে।

ক্ষমতায় বসে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে দুই বিচারপতি নিয়োগ দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের নয় সদস্যের বেঞ্চে রক্ষণশীলদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে - ব্যবধানে। উদারপন্থী বিচারপতি গিন্সবার্গের মৃত্যুর পর তার স্থলে একজন রক্ষণশীলকে নিয়োগ দিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা আরো বাড়িয়ে নিতে চান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর তা সম্ভব হলে আগামী কয়েক দশক ধরে সুপ্রিম কোর্টের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিজেদের পক্ষে পেতে সুবিধা পাবেন রক্ষণশীল রিপাবলিকানরা।

এর আগে অ্যামি কনি ব্যারেট বারবারা লাগোয়া নামে দুই ফেডারেল নারী বিচারকের প্রশংসা করেছেন ট্রাম্প। দুই রক্ষণশীল বিচারকের কেউ মনোনীত হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আগামী নভেম্বরের নির্বাচনের আগে বিচারপতি নিয়োগের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান ডেমোক্র্যাটদের। তারা যুক্তি দেখাচ্ছেন, ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে বিচারপতি মনোনয়ন করতে দেয়নি সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান সিনেটররা। কিন্তু এবার রিপাবলিকান দলীয় সিনেট মেজরিটি লিডার মিচ ম্যাককনেল বলছেন, ট্রাম্প মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন তারা। ২০১৬ সালে তিনি বলেছিলেন, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নিয়োগে আমেরিকার জনগণের মতের প্রতিফলন ঘটতে হবে। যার মানে ছিল নতুন প্রেসিডেন্টের মাধ্যমেই ওই বিচারপতি মনোনয়ন নিয়োগ হবে। কিন্তু এখন সুর পাল্টিয়ে বলেন, রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেটে রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মনোনয়ন উপস্থাপনের সুযোগ অবশ্যই রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন