শনিবার | অক্টোবর ৩১, ২০২০ | ১৬ কার্তিক ১৪২৭

শেয়ারবাজার

এপেক্স ট্যানারির পর্ষদ সভা ২৮ সেপ্টেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক

এপেক্স ট্যানারি লিমিটেডের লভ্যাংশ নির্ধারণী পর্ষদ সভা ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সভায় অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি ৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০ হিসাব বছরে কোম্পানিটির নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

সমাপ্ত হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) এপেক্স ট্যানারির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৭ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৬৫ পয়সা। তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ইপিএস হয়েছে ১০ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৬ পয়সা। ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৬৫ টাকা ৮৭ পয়সা।

২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ৩৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে এপেক্স ট্যানারি। ফেয়ার ভ্যালুয়েশন সারপ্লাস বাদ দিয়ে আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৪১ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ২ টাকা ৫৩ পয়সা। ওই বছরের ৩০ জুন কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৬৯ টাকা ২১ পয়সা।

২০১৮ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ৪০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় এপেক্স ট্যানারি। চামড়া খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানিটি ২০১৭ হিসাব বছরেও ৪০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ এপেক্স ট্যানারি শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ১১৪ টাকা ৬০ পয়সা। সমাপনী দর ছিল ১১৪ টাকা ২০ পয়সা। গত এক বছরে শেয়ারটির দর ৯৬ টাকা থেকে ১২৭ টাকার মধ্যে ওঠানামা করেছে।

১৯৮৫ সালে তালিকাভুক্ত এপেক্স ট্যানারির অনুমোদিত মূলধন ৫০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ১৫ কোটি ২০ লাখ টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ৪৮ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ১ কোটি ৫২ লাখ ৪০ হাজার। এর মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে ৩১ দশমিক ৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৩৬ দশমিক ৮৬ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে বাকি ৩১ দশমিক ৮৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন