শুক্রবার | অক্টোবর ৩০, ২০২০ | ১৫ কার্তিক ১৪২৭

খবর

ঢাকা ওয়াসার এমডি তাকসিমের মেয়াদ ৩ বছর বাড়ানোর সুপারিশ বোর্ডের

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে প্রকৌশলী তাকসিম এ খানের মেয়াদ আরও তিন বছর বাড়ানোর প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর সুপারিশ উঠে এসেছে বোর্ড সভায়। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলে ষষ্ঠবারের মতো এই পদে বসতে যাচ্ছেন তিনি। 

আজ শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত ওয়াসার বোর্ড সভায় এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। 

২০০৯ সালে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে প্রথম নিয়োগ পান তাকসিম এ খান। এরপর চার দফায় তার মেয়াদ বাড়ানো হয়। আগামী ১৪ অক্টোবর তার পঞ্চমবারের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তার আগে গত বৃহস্পতিবারের এক নোটিশে আজ বিশেষ বোর্ড সভার আয়োজন করা হয়। সভার একমাত্র আলোচ্য বিষয় ছিল তাকসিম এ খানকে আরও তিন বছরের জন্য নিয়োগ দিতে মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো।

বোর্ড সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়াসার বোর্ড সদস্য ও সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। সভায় তাকসিম এ খানসহ এক ঘণ্টার জুম মিটিংয়ে নয়জন অংশ নেন বলে জানা গেছে।

সভার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানতে চাইলে মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বণিক বার্তাকে বলেন, আলোচনা হয়েছে। সেখানে ‘প্লাস’ এবং ‘মাইনাস’ আছে। তবে প্লাসের (তাকসিম এ খানের পক্ষে) পরিমাণ বেশি। আমি এখন এগুলো ‘সর্টিং’ করতেছি। কালকে রেডি করে মন্ত্রণালয়ে পাঠাবো। তারপর মন্ত্রণালয় তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।

সভার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানতে চাইলে বোর্ড সদস্য ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ বলেন, বৈঠকে একজন বাদে বাকি সবাই সম্মতি দিয়েছেন তাকসিম এ খানের মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে। আজকে বোর্ডের বৈঠকের একমাত্র এজেন্ডাই ছিল এটার প্রস্তাবনা। আমরা এই বিবেচনায় সম্মতি দিয়েছি, কারণ অতীতেও দেখেছি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় একটা প্রস্তাবনা দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন তখন আমরা বুঝতে পারি এটা সরকারের সিদ্ধান্ত। সরকার চাচ্ছে। এই ইতিবাচক জায়গায় আমরা দ্বিমত না করে প্রস্তাবনার পক্ষে মত দিয়েছি। প্রস্তাবটি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে যাবে। সেখান থেকে প্রস্তাবের সারাংশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হবে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলে নিয়োগ চূড়ান্ত হবে।

সভা সূত্রে জানা গেছে, বোর্ডের সদস্য প্রকৌশলী ওয়ালিউল্লাহ এই প্রস্তাবে সমর্থন করেননি। আর দুইজন সদস্য মেয়াদ বৃদ্ধির পক্ষে তবে সেটা তিনবছর নয়। আরেকটু কমানোর পক্ষে কথা বলেছেন। তারা হলেন, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সেলিনা আক্তার ও কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক। একজন সদস্য বলেছেন, কতবছর মেয়াদ বাড়বে সেটা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় চূড়ান্ত দায়িত্ব নিক। আমরা মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে, তবে নির্দিষ্ট করে তিন বছরের পক্ষে আমাদের অমত আছে। 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন